মহানগরশিরোনাম-২

রাজশাহীতে মহিলা দলের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

বিশেষ প্রতিনিধি :বাংলাদশে জাতীয়বাদী মহিলা দলের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল সোমবার বিকেলে নগরীর মালোপাড়াস্থ বিএনপি কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। রাজশাহী মহানগর মহিলা দলের আয়োজনে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মহানগর মহিলা দলের যুগ্ম আহবায়িকা অধ্যাপিকা সোখিনা খাতুন। প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য জননেতা মিজানুর রহমান মিনু। প্রধান বক্তা ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সিটি মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শহীদুন্নাহার কাজী হেনা। সভা পরিচালনা করেন মহানগর মহিলা দলের যুগ্ম আহবায়িকা শাহানাজ পারভীন লাকী।

অন্যদের মধ্যে মহানগর যুবদলের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সুইট, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হাসনাইন হিকোল, মহানগর মহিলা দলের যুগ্ম আহবায়িকা সামসুন নাহারজরিনা ও গুলশান আর মমতা সহ মহানগর মহিলা দলের বিভিন্ন ওয়ার্ডের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রদান অতিথির বক্তব্যে মিনু বলেন, বাংলাদেশের অর্ধেক নারী। এই নারীদের বাদ দিয়ে দেশের উন্নয়ন করা সম্ভব নয়। সেইদিক চিন্তা করে স্বাধীনতার ঘোষক, গণতন্ত্রের পুরোধা, বাংলাদশের উন্নয়নের রুপকার শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান মহিলা দল প্রতিষ্ঠা করেন। সেইথেকে বাংলাদেশের উন্নয়নে নারীরা বিশেষ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। দেশের এই উন্নয়নের ধারা বন্ধ করে দিয়েছে বর্তমান সরকার। তারা দুর্নীতি করে দেশকে অর্থনৈতিকভাবে পঙ্গু করে দিয়েছে। দেশে এখন আইনের শাসন নাই উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশে চলছে এখন খুন, গুম, নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা। দেশের আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, গণতন্ত্র পুণরুদ্ধার, এই অবৈধ সরকারের পতন, নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকারের অধিনে নির্বাচন এবং বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে বিশেষ ভূমিকা রাখার জন্য মহিলা নেতৃদের প্রতি আহবান জানান মিনু। 

প্রধান বক্তা বুলবুল বলেন, এই সরকার দেশকে মেধাশুন্য করতে পড়ালেখার মান ধ্বংস করেছে। নারীদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। সারা দেশে চলছে ধর্ষন, হত্যা ও এসিড নিক্ষেপের মত জঘন্যতম ঘটনা। আর এই সকল ঘটনার বিচার না হওয়ায় এর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। বর্তমান সরকারের সুযোগ্য ছাত্রলীগের ছেলেরা এই অপকর্মে লিপ্ত থাকায় সরকার নিরব ভূমিকা পালন করছে। বর্তমান এই অবৈধ সরকার গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে একনায়কতন্ত্র কায়েম করেছে। তারা আসছে সংসদ নির্বাচনে বিনাভোটে বিজয়ী হওয়ার জন্য গভীর ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। আর এই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামরল দিয়ে কারাগারে রেখে সাজানো আদালত বানিয়ে প্রহসনের বিচার করছে। কারাগারে বেগম জিয়াকে মেরে ফেলার পাঁয়তারা করছে। বর্তমান সরকারের এই এই সকল ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য মহিলা দলের প্রতি আহবান জানান তিনি। সেইসাথে সরকার পতন, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে মহিলা দলের সকল নেতাকর্মীকে মাঠে থাকার আহবান জানান বুলবুল।

সভাপতি সকল আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, কেন্দ্রীয় কর্মসূচী ও মহানগর বিএনপির সখল প্রকার আন্দোলন ও কর্মসুচীতে মহিলাদল সর্বাদা সক্রিয় ভূমিকা রাখবে।  বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close