পাবনাশিরোনাম-২

নির্বাচনী ফেস্টুনেও নদী উদ্ধারের ঘোষণা থাকা দরকার- জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন

পাবনা প্রতিনিধি : পাবনা’র জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন বলেছেন আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীদের ফেস্টুনে ইছামতি নদী উদ্ধারের ঘোষণা থাকা দরকার। ইছামতি নদীর উপর ছোট ছোট ব্রিজ নদীতে পানি প্রবাহের বড় অন্তরায়। ইছামতি নদী নর্দমার ভাগারে পরিণত হওয়ায় যে ক্ষতি হয়েছে এবং হচ্ছে তা হয়তো টাকা দিয়ে পুরণ করা যাবে। জেলা স্কুল এবং সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর অবস্থার উন্নতি না হলে আগামী প্রজন্ম ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যাবে। পাবনা থেকে নেতৃত্ব দেওয়ার আর কেউ থাকবে না। সময় থাকতে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে। বরিশাল কিংবা চট্রগ্রাম থেকে পাবনায় এসে কেহ মাদকের ব্যবসা করছে না। এসব মাদক ব্যবসায়ীরা পাবনা’রই মানুষ।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড’র উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (০৮’নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে “ইছামতি নদী পূনরায় পূণরুজ্জীবনের জন্য পরিবেশগত ও সামাজিক প্রভাব বিব্লেষণসহ সম্ভাব্যতা সমীক্ষা” শীর্ষক প্রকল্পের চলমান কার্যাবলীর অগ্রগতি এবং ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনার উপর মতবিনিময় কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন কোন মিটিং এ পৌর মেয়রের দেখা মেলে না। পৌর সভার সমস্যা সমাধানে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হলে অবশ্যই তাকে মিটিংএ থাকতে হবে। ইছামতি নদীর পানি প্রবাহের অন্যতম বাধা হিসেবে তিনি জানান, রূপপুর প্রকল্পের কাছে ইছামতি নদীতে পানি ঢোকার রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এ চ্যানেল খোলা না হলে ইছামতি নদীতে পানি আসবে না। ইছামতি নদীতে পানি প্রবাহ এবং অবৈধ দখল উচ্ছেদ করতে হলে পাবনাবাসীর ঐক্যবদ্ধ হওয়া খুবই জরুরী।

পাউবো’র রাজশাহী উত্তর পশ্চিমাঞ্চল প্রধান প্রকৌশলী মহম্মদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বাপাউবো পাবনা তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এস. এম. শহিদুল ইসলাম ও পাবনার বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোস্তাক আহম্মেদ সুইট। প্রকল্পের আওতায় ইছামতি নদী পুনরুজ্জীবনের সম্ভাব্য উপায়সমূহ এর উপর উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) পানি ও বন্যা ব্যবস্থাপনা ইনস্টিটিউট এর অধ্যাপক ড. আনিসুল হক এবং সমীক্ষা প্রকল্পের প্রেক্ষাপট এর উপর উপস্থাপনা করেন (বুয়েট) অধ্যাপক ড. রেজাউর রহমান।

২০১৩ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত ইছামতির বাস্তব চিত্র উপস্থাপন করেন পাবনার বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোস্তাক আহমেদ সুইট। স্বাগত বক্তব্য দেন বাপাউবো ঢাকা পরিচালক (পরিকল্পনা-১) ফজলুর রশিদ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী রেজাউল করিম, পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী তবিবুর রহমান, পাবিপ্রবি’র পরিচালক ড. নাজমূল ইসলাম, ইছামতি নদী উদ্ধার আন্দোলন পাবনার আহ্বায়ক এস.এম.মাহবুব আলম ও সদস্য হাবিবুর রহমান, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ এ কে মির্জা শহিদুল ইসলাম প্রমুখ। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বাপাউবো পাবনা নির্বাহী প্রকৌশলী জহুরুল ইসলাম।

কর্মশালায় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী  কর্মকর্তা কাজী আতিয়ুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শাফিউল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) রুহুল অমিন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নুল আবেদীন, জনস্বস্থ্য নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান হাবিব, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আব্দুর রউফ, বিএডিসি জেলা কর্মকর্তা সাজ্জাদ হোসেন, পাউবো পাবনা নির্বাহী প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) আহমুদুল্লাহ, সহকারী পরিচালক মোশাররফ হোসেন, চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক এবিএম ফজলুর রহমান, ড. সুজিত কুমার, সমাজ বিজ্ঞানি আবুল কাশেম প্রমুখ।

বরেন্দ্র বার্তা/আসশ

Close