পাবনা

এপেক্স ক্লাব অব পাবনা’র চার্টার সার্টিফিকেট প্রদান

পাবনা জেলা প্রতিনিধি: সেবা, সুনাগরিক ও সৌহার্দ এই তিনটি প্রতিপাদ্য বিষয়কে কেন্দ্র করে আন্তর্জাতিক সেচ্ছা-সেবামূলক সংগঠন এপেক্স ক্লাব অব পাবনা’র চার্টার সার্টিফিকেট পেজেন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার (২৪’নভেম্বর) পাবনা জেলা পরিষদের রশিদ হলে বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠান শুরু হয়ে চলে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত।

বহিঃবিশ্ব ও দেশের অভ্যন্তরে বিভিন্ন জেলা থেকে আগত সকল এপেক্সসিয়ানবৃন্দের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন এপেক্স ক্লাব অব পাবনা’র সার্ভিস ডিরেক্টর এপে. শফিক আল কামাল। এপেক্স ক্লাব’র কনস্টিটিউশন অনুযায়ী পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াতের মধ্যেদিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। এরপর পর্যায়ক্রমে দাড়িয়ে সম্মান প্রদর্শন করে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন, আইডিয়াল ও ইনভোকেশন পাঠ করা হয়।

এপেক্স ক্লাব অব পাবনা’র সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও অনুষ্ঠানের চেয়ারম্যান এপে. তৌফিক ইমাম খান পাবনা ক্লাব’র কার্যক্রম সম্পর্কে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন। এপেক্স ক্লাব অব নাটোরের প্রেসিডেন্ট এপে. মো. তাজুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় ও এপেক্স ক্লাব অব পাবনা’র প্রতিষ্ঠাতা প্রেসিডেন্ট ডা. মো. মঞ্জুর এলাহী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তব্য দেন এপেক্স বাংলাদেশের ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট এপে. সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসাইন সেবুল। তিনি বলেন জনসেবামূলক সর্ব প্রকার কাজে পাবনা ক্লাব এগিয়ে যাবে। তাদের মহৎ কার্যক্রমকে আমি আন্তরিক সাধুবাদ জানাই।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য দেন এপেক্স ইন্ডিয়া’র ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট এপেক্সসিয়ান ডিপটেন্ডু চ্যার্টাজী ও এপেক্স বাংলাদেশের ইমিডিয়েট পাস্ট ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট এপেক্সসিয়ান মো. খোরশেদ-উল আলম অরুণ। অন্যন্যদের মাঝে আরও বক্তব্য দেন এপেক্স বাংলাদেশের জাতীয় এক্সেপেনশন ডিরেক্টর এপে. মো. হেলাল উদ্দিন, এপেক্স বাংলাদেশের আইপিডিজি রওশন আরা শ্যামলী, এপেক্স বাংলাদেশের জাতীয় সেক্রেটারী এপে. জি এম মোরশেদ প্রমুখ।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ডিজি-০৩’র এপে. এস এম হাসান আলী, ডিজি-০৭’র এপে. নুরুল মতিন সৈকত, ডিজি ইলেকটেড এপে. অনল কুমার মন্ডল, এপেক্স ক্লাব অব রাজশাহীর প্রেসিডেন্ট নিমাইচন্দ্র সাহা, সেক্রেটারী রশিদ স্বপন, পাবনা ক্লাবের এপেক্সসিয়ানসহ বিভিন্ন ডিস্ট্রিকট এর এপেক্সসিয়ানবৃন্দ। শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে আগত এপেক্সসিয়ান, অতিথি ও দর্শক শ্রোতাদের মুগ্ধ করেন শিল্পীরা। বরেন্দ্র বার্তা/শআকা/এই

Close