মহানগরশিরোনাম

পবার হড়গ্রাম ইউনিয়নে মিলনের গণসংযোগ

বিশেষ প্রতিবেদক : সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত পবার হড়গ্রাম ইউনিয়নে গণসংযোগ করেন মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও পবা-মোহনপুর আসনের ধানের শীষের প্রার্থী এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন।

তিনি এসময়ে অত্র ওয়ার্ডের বিভিন্ন গ্রাম ও পাড়া এলাকায় যান এবং বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য জনগণের নিকট ধানের শীষে ভোট প্রার্থনা করেন। এছাড়াও উপস্থিত নেতাকর্মী ও সমর্থকগণ ধানের শীষের পক্ষে স্লোগান দিতে থাকেন। গ্রাম ও পাড়া এলাকা এসময়ে মিছিলের এলাকায় পরিণত হয়। গণসংযোগকালে মিলন বলেন, অনির্বাচিত এই সরকার পুনরায় জোর করে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য প্রহসনের নির্বাচন করার ষড়যন্ত্র করছে। নির্বাচন কমিশন এবং পুলিশ বিভাগ ও প্রশাসনের কর্মকর্তা ও সদস্য প্রত্যক্ষভাবে সরকার দলীয় প্রার্থীদের সহযোগিতা করছে। তাঁর এলাকায় ধানের শীষের পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন সবগুলোই ছিড়ে ফেরেছে। এছাড়াও প্রায় সবগুলো নির্বাচনী অফিস ভেঙ্গে ফেলে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলেছে। ভোটারদের বয়ভীতি প্রদর্শন অব্যাহত রেখেছে। সেইসাথে নৌকার প্রার্থী নিজে এবং তাঁর ক্যাডার বাহিনী দিয়ে পবা-মোহনপুরে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে বলে জানান তিনি।
তিনি আরো বলেন, শুধু তাই নয় নৌকার প্রার্থী নিজেই ভোটারদের হুমকি দিচ্ছে। নৌকায় ভোট না দিয়ে বোটের পরে তাদের দেখে নেবে বলে হুমকি দিচ্ছে। বতর্মান সাংসদ জনবিচ্চিন্ন হয়ে এই সকল কর্মকা- করছে বলে জানান মিলন। মিলন আরো বলেন, যতই হুমকী দিকনা কেন ধানের শীষের বিজয় কোনভাবেই রোধ করতে পারবে না। জনগনের মধ্যে ধানের শীষ রয়েছে। অফিস ভাঙ্গচুর ও পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুন ছিড়লেও ভোটারদের মন সরকার দলীয় প্রার্থী ছিড়তে পারেনি। তারা এই অত্যাচারী নৌকার প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে এবং ঠিকই তারা ধানের শীষে ভোট দেবেন বলে জানান তিনি। অত্র সংসদীয় আসনের উন্নয়নের জন্য এবং বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও দেশের গণতন্ত্র রক্ষা এবং এই স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য সকল বাধা অতিক্রম করে ধানের শীষে ভোট প্রদানের অনুরোধ করেন তিনি। সেইসাথে ২৯ তারিখ থেকে ভোট কেন্দ্র পাহারা ও ভোট গণনা করে প্রিজাইডিং অফিসারের নিকট হতে স্বাক্ষর নিয়ে ভোট কেন্দ্র ছাড়ার পরামর্শ দেন মিলন।
এরপর দুপুর থেকে তিনি মোহনপুর পোলিং এজেন্ট ও নেতাকর্মীদের সাথে নিজ কার্যালয় বিসিকে সভা করেন। তাদেরও একই প্রকার নিদের্শনা দেন তিনি। এসময়ে জেলা বিএনপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রায়হানুল আলম রায়হান, হড়গ্রাম ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি এরশাদ আলী এরশাদ, হড়গ্রাম ইউনিয়ন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ, যুগ্ম আহবায়ক আনারুল ইসলাম, বসুয়া কেন্দ্র কমিটির যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল ওহাব ও জিয়া, শিলিন্দা কেন্দ্র কমিটির যুগ্ম আহবায়ক সুজন ও শহিদুল ইসলামসহ অত্র ইউনিয়ন বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের শত শত নেতাকর্মী ও সমর্থকগণ উপস্থিত ছিলেন। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

 

Close