বাগমারা

বাগমারায় মাদক সেবনে এক ব্যক্তির মৃত্যু

বাগমারা প্রতিনিধি: বাগমারায় মাদক সেবনে আজাদ রহমান (৪৮) নামের এক ব্যক্তির মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। মৃত আজাদ রহমান রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার আনোলিয়া গ্রামের মৃত সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে বলে জানা গেছে। পুলিশ মৃত মাদক সেবনকারী আজাদ রহমানের লাশ উদ্ধার
করে ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকের কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন বলে বাগমারা থানার ওসি তদন্ত মিজানুর রহমান জানিয়েছেন।
বাগমারা থানার পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বাগমারার গনিপুর ইউনিয়নের মহববতপুর গ্রামের আদিবাসী পাড়া থেকে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চলাই তৈরী মদ খেয়ে মাতলামি করতে করতে মাদারীগঞ্জ বাজারের দিকে যাচ্ছিল। রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় মানুষের অজান্তে আজাদ রহমান মূল রাস্তার ধারে রাতের কোন এক সময় পড়ে যায়। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে এলাকার লোকজন রাস্তার পার্শ্বে মরা মানুষ দেখতে পেয়ে

বাগমারা থানার পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় এবং মৃত ব্যক্তির বিষয়ে খোঁজ খবর নেয়া শুরু করেন। মরা মানুষের খবরটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে পার্শ্ববতি দুর্গাপুর উপজেলার আনোলিয়া গ্রামের লোকজন লাশটি সনাক্ত করেন। পুলিশ আজাদের পরিবারকে খবর দিয়ে ঘটনাস্থলে নিয়ে আসলে পরিবারের লোকজন লাশটি সনাক্ত করার পর পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। এ ঘটনার আগেও বাগমারার গনিপুর ইউনিয়নের আদিবাসী পাড়ায় চুলাই তৈরী মদ খেয়ে একাধিক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে এলাকার লোকজন অভিযোগ করেছেন।
এলাকার লোকজন অবিলম্বে আদিবাসীপাড়ার মদের ভাটি উচ্ছেদের দাবী জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে বাগমারা থানার ওসি তদন্ত মিজানুর রহমান বলেন, মাদক সেবনের কারনেই আজাদের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। এলাকার লোকজনের সহযোগীতা পেলেই বাদিবাসীপাড়া থেকে মদের ভাটি উচ্ছেদ করা সম্ভব হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। বরেন্দ্র বার্তা/ আম/ নাসি

Close