উন্নয়ন বার্তামহানগরশিরোনাম-২

জানুয়ারী মাসে আত্মহত্যা ৪, ধর্ষণ-যৌন নির্যাতনের শিকার ১২

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: উন্নয়ন সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার (লফস) অত্র জেলায় দীর্ঘদিন যাবৎ নারী ও শিশুর উন্নয়নে কাজ করছে। মানবাধিকার সংগঠন হিসেবে লফস সংস্থার ডকুমেন্টেশন সেল থেকে রাজশাহীর প্রচারিত দৈনিক পত্রিকার সংবাদের ভিক্তিতে নিয়মিত নারী ও শিশু নির্যাতনের পরিস্থিতি প্রকাশ করে। লফস মনে করে অত্র অঞ্চলে নারী ও শিশু নির্যাতন পরিস্থিতি বিভিন্ন মাত্রায় অবনতি ঘটছে। যৌতুক ও পরকীয়ার কারনে অধিকাংশ নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। অনেক ক্ষেত্রে বিদেশি কিছু টিভি সিরিয়াল পরকিয়াকে উৎসাহিত করছে। এছাড়া পারিবারিক কলহ ও প্রেম ঘটিত কারনে হত্যা-আত্মহত্যা ও অমানবিক নির্যাতনের মতো ঘটনা ঘটছে। বিষয়গুলো কারও জন্য সুখকর নয়।

জানুয়ারী মাসে অমানবিক কিছূ ঘটে যাওয়া ঘটনার চিত্র- নগরীতে মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবাকে মারধর, নগরীর আসাম কলোনীতে ৭ম ও ৩য় শ্রেণির ছাত্রী আখিঁ আখতার (১২) ও রুমানা খাতুন (১৪) অপহরণ, পুঠিয়ার শাহাবাজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী সুহান (১৭) এর বিষপানে আত্মহত্যা,  মোহনপুরে গোপালপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম ইউনিয়নের মহদিপুর গ্রামের ইসমত আরা বেগম (২৫) এর গলায় ফাস দিয়ে আত্মহত্যা, নগরীর নিউ গভ: ডিগ্রী কলেজের ছাত্রীকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবী, দূর্গাপুরে এক কলেজ ছাত্রী ধর্ষণের শিকার, নগরীর কাজলা সাঁকোপাড়া মহল্লায় স্বামীর তৃতীয় বিয়ে করায় সিতারা বেগম (২৮) অভিমানে আত্মহত্যা, পবায় ভাইয়ের মারপিটে স্বামী, স্ত্রীসহ ছেলে আহত, বাঘা উপজেলার পদ্মার চরে স্বামী ও শাশুড়ির নির্যাতনে গুহবদূ মৌসুমি খাতুন (২৬) ভ্যাসমল তেল খেয়ে আত্মহত্যা করে, বাঘায় শশুরবাড়ী কর্তৃক লাবনী সহ তার পরিবার নির্বযাতনের শিকার, পুঠিয়ায় বানেশ^র ইউনিয়নের কাচারীপাড়া দূর্বত্তদের ছুড়া আগুনে ঝলসে গেল জেরিন আক্তার এর মুখ, নগরীর চন্দ্রীমা থানাধীন শিরোইল কলোনীর ১নং গলির বাসিন্দা মেহেদী হাসান রাফি (১১) কে অপহরণের চেষ্টা, বাঘা উপজেলায় স্ত্রী শামীমা আকতার রেখাকে চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে রাস্তায় ফেলে পালিযেছে স্বামী ঘটনাগুলো সকলের জন্য উদ্বেগজনক। লফস এর নির্বাহী পরিচালক শাহানাজ পারভীন বলেন সংবাদ পত্রে প্রকাশিত ঘটনার বাইরেও অনেক ঘটনা ঘটে যা প্রকাশিত হয় না বা কোন তথ্য জানা যায় না এমন বাস্তবতায় রাজশাহীতে নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রকাশিত তথ্য হতাশাজনক। রাজশাহী অঞ্চলে নারী শিশু নির্যাতন সহ সার্বিক ঘটনাগুলোর সুষ্ঠ তদন্ত ও দায়ীদের দিষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। তিনি বলেন অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করা না গেলে ক্রমশই অপরাধীরা উৎসাহিত হবে এবং অপরাধের মাত্রা বৃদ্ধি পাবে। লফস সকল নারী শিশু নির্যাতন ঘটনাগুলোর সুষ্ঠ তদন্ত স্বাপেক্ষে অপরাধীর কঠোর শাস্তির দাবী জানান। বরেন্দ্র বার্তা/হাপি

Close