চারঘাটতানোরদূর্গাপুরপবাশিরোনাম

উপজেলা নির্বাচন: রাজশাহীতে আওয়ামীলীগের পুরনো নেতাদের মূল্যায়ন

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ১০ মার্চ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। প্রথম ধাপে রাজশাহীর আটটি উপজেলা নিয়ে হতে যাচ্ছে এ নির্বাচন। এ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দীর্ঘদিনের পুরনো পরিচিত মুখ গুলো এবার মনোনয়ন পেয়েছেন। তৃনমূলের নেতাকর্মীরা বিষয়টিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন। কেবল মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েছেন বাগমারার বর্তমান চেয়ারম্যান ও রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জাকিরুল ইসলাম সান্টু।
আওয়ামী লীগ রাজশাহীর সবগুলো উপজেলার জন্য প্রার্থীদের মনোনয়ন দিলেও পবা উপজেলায় নির্বাচন আপাতত হচ্ছে না। কয়েকদিন আগেই হাইকোর্টের এক রায়ে এখানে নির্বাচন পিছিয়ে গেছে একবছর। আগামী ১০ মার্চ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে রাজশাহীর আট উপজেলায় ভোটগ্রহণ হবে।

রাজশাহীতে এবার আওয়ামীলীগ থেকে নয়টি উপজেলার মধ্যে একজন বর্তমান চেয়ারম্যান দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। আর নতুন মুখ এসেছে পাঁচটিতে। বাকি তিনটি উপজেলায় যারা মনোনয়ন পেয়েছেন তারা গত উপজেলা নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছিলেন।

রাজশাহীতে নৌকার বৈঠা পেয়েছেন পবায় জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প বিষয়ক সম্পাদক মুনসুর রহমান, তানোরে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লুৎফর হায়দার রশীদ ময়না, পুঠিয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জিএম হিরা বাচ্চু, দুর্গাপুরে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম।

বাঘায় মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লায়েব উদ্দীন লাভলু। সাবেক এই ছাত্রনেতা দীর্ঘদিন ধরে এই আসনে সংসদ সদস্যের মনোনয়ন চেয়ে ব্যর্থ হয়েছেন। এবার তাঁর মনোনয়ন প্রাপ্তিতে এলাকার স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতারা আনন্দ প্রকাশ করেছেন।
গোদাগাড়ীতে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, চারঘাটে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফকরুল ইসলাম, মোহনপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম এবং বাগমারায় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি  অনিল কুমার সরকার।

এদের মধ্যে আর নতুন মুখ হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন বাগমারার অনিল কুমার সরকার। যিনি দীর্ঘ দিন ঘরে হিন্দু কল্যাণ পরিষদের ট্রাস্টি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এই আসন থেকে এবার মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েছেন বাগমারার বর্তমান চেয়ারম্যান জাকিরুল ইসলাম সান্টু। ধারণা করা হচ্ছে
স্থানীয় সাংসদের বিরোধের জেরে তাঁর মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। আওয়ামী লীগ রাজশাহীর সবগুলো উপজেলার জন্য প্রার্থীদের মনোনয়ন দিলেও পবা উপজেলায় নির্বাচন আপাতত হচ্ছে না। আগামী ১০ মার্চ পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে রাজশাহীর আট উপজেলায় ভোটগ্রহণ হবে। বরেন্দ্র বার্তা/ নাসি

Close