নাগরিক মতামতশিক্ষাঙ্গন বার্তাশিরোনাম-২শিশু বার্তা

স্কুল যদি এমন হতো

সুবাহ আলম

‘ক্লাসরুম’ শব্দটা শুনলে আমাদের মাথায় কেমন দৃশ্য উঁকি দেয়? একটা বোর্ড আর অনেকগুলো সারি সারি বেঞ্চ। ব্যাস! আর সারাদিন স্কুলে একঘেয়েমি পড়ালেখা। বাসায় এসে এত পড়া আর পরদিন হোমওয়ার্ক। বাচ্চাদের জন্য স্কুলের পরের সময়টা নামতা মুখস্থ, স্থূলকোণ, সূক্ষ্মকোণ, আবার ইংরেজির এত শব্দ মনে রাখতে রাখতেই চলে যায়।

একেবারেই অন্যরকম একটা স্কুলের কথা ভাবুন তো, যেখানে একটা বাচ্চা স্কুলে ঢুকেই সুন্দর একটি বাক্যের মাধ্যমে স্বাগত হয়। সিঁড়ি দিয়ে উঠতে উঠতেই বাচ্চারা শিখে ফেললো নামতা। দরজা খুলে বন্ধ করে যে জ্যামিতি শেখা যায় সেটা কী আপনার মাথায় এসেছিলো কখনো? এই স্কুলে বাচ্চারা দরজা খোলা-বন্ধের মাধ্যমে শেখে কোণের হিসাব-নিকাশ। গণিত তো শেখা হলো। এবার একটু মহাকাশ নিয়ে জেনে আসা যাক। একটা দেয়ালে বিভিন্ন গ্রহের নাম লেখা। আবার আরেক দেয়ালের নাম ‘Word Wall’। সেখান থেকে বাচ্চারা শেখে ইংরেজি বিভিন্ন শব্দ।

ওয়াশরুমে ঢুকে বাচ্চারা দেখে সেখানে আয়নার উপর একটা মন ভালো করা লেখা ‘You are beautiful!!’ এভাবে সারাদিন বাচ্চাদের মনে খুব সহজভাবে বিষয়গুলো ঢুকিয়ে দেয়া হলো। শুধু লেখাপড়া নয়, এই স্কুলে বাচ্চাদের শেখানো হয় আত্নবিশ্বাস। স্কুলে ঢোকার সাথে সাথেই দেয়ালে চোখ যায় যেখানে লেখা থাকে সে এই স্কুল পরিবারের একজন অন্যতম সদস্য। প্রথাগত একঘেয়ে শিক্ষাব্যবস্থার বদলে এমন স্কুলে ক্লাস করে যাদের শৈশব কেটেছে তাদের জীবনটা নিশ্চয়ই আরও অনেক সুন্দর হয়ে গড়ে উঠছে। ‘ইশ, আমাদের স্কুলটাও যদি এমন হতো’ এমন আফসোস করতে করতে ঘুরে আসুন অভিনব সব চমৎকার ক্লাসরুম।

Close