উন্নয়ন বার্তামহানগরশিরোনাম

লফস এর আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন

নিজস্ব প্রতিবেদক : “ সবাই মিলে ভাবো, নতুন কিছু করো – নারী-পুৃরুষ সমতার, নতুন বিশ্ব গড়ো ” স্লোগানে রাজশাহী সাহেব বাজর জিরো পয়েন্টে জেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

উন্নয়ন ও মানবাধিকার সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার (লফস) কর্মসুচীতে অংশ গ্রহ্রন করে। লফস এর নির্বাহী পরিচালক নারী দিবস উপলক্ষে এক বিবৃতিতে বলেন নারী দিবস নারীর অধিকার আদায়ের দিবস। বর্তমান সরকার নারীদের উন্নয়নে বহুমাত্রিক উন্নয়ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে। নারীদের বিচরণ এখন সবত্র। একই সাথে আমাদের দেশে উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে নারী নির্যাতন ও যৌন সন্ত্রাস।

গত ১৪ মাসে রাজশাহীতে সংবাদ পত্রে প্রকাশিত তথ্য অনুয়ায়ী ১৬৪ জন নারী বিভিন্ন ভাবে নির্যাতিত হয়েছে। যা শুধু প্রকাশিত হয়েছে এর বাইরে অসংখ্য ঘটনা ঘটে যা আড়ালে থেকে যায়। নিরবে সহ্য করে নারীরা। এমন বাস্বতায় নারী দবসে পালিত হচ্ছে আমাদের দেশে। তিনি উল্লেখ করেন সরকার দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত নারীদের বিনা মূল্যে পড়াশুনার সুযোগ দিচ্ছে কিস্তু স্কুল-কলেজ যাওয়ার পথ সুগম নয় এমন বাস্তবতায় অভিভাবকরা মেয়েদের অল্প বয়স বিয়ে দিয়ে দিচ্ছে। আমাদের নৈতিক মূল্যবোধের অভাব ও সামাজিক অবক্ষয়ের কারনে নারী নির্যাতনের ঘটনা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। স্কুল, কলেজ এমনকি নিজ বাসায় নিরাপদ নয় শিশু কিশোরীরা। বর্তমানে মায়ের কোলে শিশু যখন নিরাপদ নয় তখন রাষ্ট্রকে এবিষয়ে গভীর ভাবে ভাবতে হবে। তিনি বলেন এই বর্বরতা থেকে সমাজকে উত্তোরনের জন্য শিক্ষা, শ্রদ্ধা, সম্মান সর্বাপরি মানসিকতা পরিবর্তনের জায়গাগুলোয় কাজ করতে হবে। স্কুলের পাশাপাশি পরিবার থেকেও নারীকে সম্মান করা শেখাতে হবে। গনমাধ্যমকে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধিতে আরও বেশি কাজ করতে হবে। সর্বপরি নারীকে সম্মান করতে পারলে সমাজ অনেক এগিয়ে যাবে যা আমাদের সকলের জন্যই মঙ্গলজনক। ২০১৯ সালে নারী দিবসে আমাদের প্রত্যাশা সকল নারী হউক সমাজের সম্পদ- আমরা যেন নারীকে সম্মান করি, মর্যাদা দিই নিজ পরিবার থেকে সকল জায়গায়। নারীর অধিকার আদায়ে সকল মতপার্থক্য ভূলে সকলকে ঐক্যবদ্ধ সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান।বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close