গোদাগাড়িশিরোনাম-২

নির্বাচনী প্রচার গাড়ী থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার: গাড়ী চালকের জেল

নিজস্ব প্রতিবেদক : আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে রাজশাহীর গোদাগাড়ী নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের নির্বাচনী প্রচার গাড়ি থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় গাড়ির চালক সঞ্চয় মন্ডলকে গ্রেফতার করে তাৎক্ষণিক সাত দিনের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার বিকেলে উপজেলার গোগ্রাম ইউনিয়নের মুরারিপুর এলাকায় তিনটি গাড়ি নৌকা প্রতীকের প্রচারণা চালাচ্ছিল। ওই সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী বদিউজ্জামানের আনারস প্রতীকের মাইকিং চলছিল। একপর্যায়ে নৌকার সমর্থকরা অপর প্রতিদ্বন্দ্বীর প্রচার মাইক ভেঙে ফেলেন। এছাড়া পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়।

গোদাগাড়ীতে নির্বাচনের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের দায়িত্বে থাকা নির্বাহী হাকিম তরিকুল ইসলাম এ দণ্ডাদেশ দেন। সঞ্জয়ের গাড়ি থেকে লাঠিসোটা, লোহার রড ও পাইপের মতো দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বদিউজ্জামানের দাবি, ‘নৌকা প্রতীকের প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম নিজে দাঁড়িয়ে থেকে তার কর্মীদের মারধর এবং প্রচার মাইক ভাঙচুর করিয়েছেন। পুলিশ নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত তার গাড়িবহরের গতিরোধ করলে তিনি পালিয়ে যান।’

আওয়ামী লীগ প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম উল্টো অভিযোগ করেন, ‘বিকেলে গোগ্রাম এলাকায় তিনি এক পথসভায় বক্তব্য দিচ্ছিলেন। তখন তাদের ওপরই হামলা চালানো হয়।

তবে ভ্রাম্যমাণ আদালত যে গাড়িবহর আটকান সেখানে তিনি ছিলেন না বলেই দাবি করেন তিনি।

ঘটনাটি প্রার্থী বদিউজ্জামান ভ্রাম্যমাণ আদালতকে জানান। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যান ম্যাজিস্ট্রেট। ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় তারা নৌকা প্রতীকের ওই তিনটি গাড়ি খুঁজতে থাকেন। পরে সন্ধ্যার দিকে কুমরপুর এলাকায় গাড়ি তিনটিকে পাওয়া যায়। এরপর গাড়িগুলো থামানো হলে একটি গাড়ির চালক ছাড়া সবাই পালিয়ে যান।বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close