আন্তর্জাতিক

জাহাজে ১৫০০ টাকায় ঢাকা-কোলকাতা !

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক : সড়ক ও আকাশ পথের পর এবার নৌপথেও ঢাকা থেকে কলকাতা যাওয়া যাবে। ২৯ মার্চ এমভি মধুমতি নামের একটি জাহাজ ঢাকা থেকে কলকাতার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে।

বুধবার বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ-ভারত নৌপ্রটোকল চুক্তির আওতায় বাংলাদেশ-ভারত ভ্রমণে ইচ্ছুক পর্যটকদের যাতায়াতের সুবিধার্থে বিআইডব্লিউটিসির নিজস্ব অত্যাধুনিক নৌযান দ্বারা সরকারি নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে পরীক্ষামূলকভাবে ঢাকা-কলকাতা যাত্রীবাহী সার্ভিস চালু করতে যাচ্ছে।

ঢাকা-কলকাতা যাত্রার কেবিন ভাড়া ফ্যামিলি স্যুট (দুজন) ১৫ হাজার টাকা, প্রথম শ্রেণি (যাত্রীপ্রতি) ৫ হাজার টাকা, ডিলাক্স শ্রেণি (দুজন) ১০ হাজার টাকা, ইকোনমি চেয়ার (যাত্রীপ্রতি) ৮ হাজার টাকা এবং সুলভ শ্রেণি বা ডেক (যাত্রীপ্রতি) ১৫০০ টাকা।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, জাহাজটি ২৯ মার্চ রাত ৯টায় পাগলা মেরিএন্ডারসন ভিআইপি জেটি থেকে ছাড়বে। এতে ৩০ জন নাবিক, ১জন পাইলট ও ১০ জন ক্যাটারার থাকবেন। এছাড়া নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়, বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিউটিএ, নৌপরিবহন অধিদপ্তর, মেরি টাইম ইন্ডাস্ট্রি, বন বিভাগ, কোস্ট গার্ড, পর্যটন করপোরেশন ও বেশ কয়েকটি ট্যুর অপারেটরের প্রতিনিধিরা জাহাজটিতে কলকাতার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন।

যাত্রাসূচি অনুযায়ী ঢাকা থেকে ছাড়ার পর বরিশাল পৌঁছাবে ৩০ মার্চ ভোর ৫টায়। তিন ঘণ্টা যাত্রা বিরতির পর বরিশাল থেকে ছেড়ে যাবে সকাল ৮টায়। একই দিনে আংটি হারা পৌছাবে ও ইমিগ্রেশন এর কাজ শেষ করে হলদিয়া বন্দর যাবে। পরে হলদিয়া বন্দর থেকে ছেড়ে যাত্রা শুরুর চার দিনের মাথায় ১ এপ্রিল কলকাতা পৌঁছাবে এমভি মধুমতি।

এর আগে ২০১৮ সালে ঢাকা-কলকাতা যাত্রীবাহী জাহাজ পরিবহনের বিষয়ে চুক্তি করে ভারত ও বাংলাদেশ। এ চুক্তিতে সাক্ষর করেন বাংলাদেশের নৌপরিবহন সচিব আবদুস সামাদ ও ভারতের জাহাজ মন্ত্রণালয়ের সচিব গোপাল কৃষ্ণ।বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close