মহানগরশিক্ষাঙ্গন বার্তাশিরোনাম-২সাহিত্য ও সংস্কৃতি

সংস্কৃতি চর্চাই পারে বিভ্রান্তি থেকে মুক্তি দিতে: হাসান আজিজুল হক

রাবি প্রতিনিধি:‘সংস্কৃতি চর্চাই কেবল পারে অপসংস্কৃতি, লোভ লালসার জীবন, বিভ্রান্তি থেকে মুক্তি দিতে। সেই সঙ্গে এমন সংস্কৃতি আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে, যেখানে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, ভাষা আন্দোলন, বরণ্যে মানুষেরা থাকবে, সেই মানুষদের অনুসরণ করে সুস্থ সমাজ, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলবে’ এসব কথা বলেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত কথা সাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বাংলাদেশ গণশিল্পী সংস্থার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ৩৫ বছর পূর্তি উৎসব অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
বিশ্ববরেণ্য এ ব্যক্তি আরও বলেন, সংস্কৃতির মাঝে রয়েছে মানুষের আসল ভাব-মূর্তি। এটা মানুষকে মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার শপথ নেয়। সংস্কৃতিমনস্ক মানুষ কখনো বিপদগামী হয় না। আমাদের দেশে সংস্কৃতি চর্চা কম হচ্ছে যার কারণে মাদকদ্রব্য এতবড় দুর্যোগ আমাদেরকে পেয়ে বসেছে।
প্রখ্যাত কথা সাহিত্যিক বলেন, রাজশাহীতে প্রথম গণশিল্পী যাত্রা শুরু হয়েছিল আজ থেকে ৩৫ বছর আগে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে সকল অন্ধকার, অন্তরের কলুষ, বিভেদ-বৈষম্য, শাসন শোষণের বিরুদ্ধে সাম্য স্বাধীকারের মিছিলে প্রথম সারিতে ছিল। গণশিল্পীর বয়সের পরিবর্তন হলেও বাংলাদেশে সংস্কৃতি চর্চার তেমন পরিবর্তন হয়নি। সম্পদের ভোগে, মানুষের অধিকারে সার্বজনীন শিক্ষায় বাংলাদেশ এখনো অনেক পিছিয়ে রয়েছে। তবে বিগত বিশ বছরের তুলনায় উন্নয়নে বাংলাদেশ অনেক সমৃদ্ধ হয়েছে। বিশেষ করে গ্রাম-সমাজে অনেক পরিবর্তন এসেছে। এখনও পুরোপুরি সমৃদ্ধ হতে বহুপথ পাড়ি দিতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সুর সৈনিক ও বাংলাদেশে গণশিল্পী সংস্থার সভাপতি সুজেয় শ্যাম। পরে ‘শিল্প সংস্কৃতি সংগ্রাম, আমাদের যুদ্ধ অবিরাম’ শ্লোগানে গণশিল্পী রাবি শাখা কার্যালয়ের সামনে থেকে শোভাযাত্রা বের হয়। পরে শোভাযাত্রাটি ক্যাম্পাসে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে আলোচনা সভায় আয়োজন করা হয়।
বিশ্ববিদ্যালয় শাখা গণশিল্পী সংস্থার সাংগঠনিক সম্পাদক নবী হোসেন’র সঞ্চালনায় এবং শাখা গণশিল্পীর সভাপতি জাকিরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে সম্মানিত আলোচক ছিলেন, প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. আনন্দ কুমার সাহা, শিক্ষাবিদ লেখক নাট্যকার মলয় ভৌমিক, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মিনা মিজানুর রহমান, বাংলাদেশ গণশিল্পী সংস্থা’র সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল রহমান।
এসময় সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মিনা মিজানুর রহমান বলেন, ডিজিটাল যুগে বিজ্ঞান জগতের যেমন সুফল রয়েছে তেমনি কুফলও রয়েছে। বর্তমানে ছাত্ররা মোবাইলে সময় নষ্ট করছে। যার ফলে সংস্কৃতি বিমুখ হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। একজন মানুষকে শুদ্ধ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারলে সে মানুষ আর নষ্ট হবে না।বরেন্দ্র বার্তা/কাহাঅ/অপস

Close