শিরোনাম-২সাহিত্য ও সংস্কৃতি

জননী গ্রন্থাগার ও সাংস্কৃতিক সংস্থার মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক : জননী গ্রন্থাগার ও সাংস্কৃতিক সংস্থা এবং হাউজিং এস্টেট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের যৌথ আয়োজনে পালিত হলো ৪৮তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০১৯।
জননী গ্রন্থাগার ও সাংস্কৃতিক সংস্থা এবং হাউজিং এস্টেট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের যৌথ আয়োজনে ও সুবর্ণলতা সংগীত বিদ্যালয়ের সহযোগিতায় নানা কর্মসূচীর মাধ্যমে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০১৯ উদযাপন করা হয়।
সকাল ৭ টায় বিদ্যালয়ের প্রাঙ্গনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও সম্মান প্রদর্শন করে প্যারেডে অংশগ্রহনের জন্য নাদিরা,জাহিদ,রুজি প্রমূখ স্টেডিয়ামে রওনা হয়। সকাল ১০ টায় সকল কর্মচারী, শিক্ষক মন্ডলী,শিক্ষার্ক্ষী ও জননীর সদস্যবৃন্দদের নিয়ে বিদ্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে মহান স্বাধীনতা দিবসের তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা সভা,শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অত্র বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোসা: আলেয়া ফেরদৌসি, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিতছিলেন সাবেক প্রধান শিক্ষক,১৪ নং ওয়ার্ড(পূর্ব) আওয়ামী লীগ,মহানগরের সহ- সভাপতি এবং বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সভাপতি মো: সাইদুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিতছিলেন জননী গ্রন্থাগার ও সাংস্কৃতিক সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা বইবন্ধু মো: আমিনুল হক রিন্টু, মো: গোলাম মোস্তফা( সুজন),মোসা: নার্গিস জাকিয়া সুলতানা,আব্দুর রহমান,জেলা শিল্পকলা একাডেমির সংগীত প্রশিক্ষক মো: আব্দুর রশিদ। অনুষ্ঠান শুরুতে কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী মোসা: আয়েশা শিদ্দিকা। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিতছিলেন জননী গ্রন্থাগারের সহ- সাধারণ সম্পাদক মোসা: জান্নাতুল ফেরদৌস লিজা,সুবর্ণলতা সংগীত বিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক মো: রনি শেখ, জননীর সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোসা: রিজিয়া খাতুন,। বক্তাগণ দিবসটির তাৎপর্য নিয়ে বিশদ আলোকপাত করেন। আলোচনা শেষে স্বাধীনতা সংগ্রামে ও যুদ্ধে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মো: মোজাম্মেল হক।। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মুজিব কবিতা আবৃত্তি করেন ৬ ষ্ঠ শ্রনীর নদী ও চাঁদনী এবং স্বাধীনতা তুমি কবিতা আবৃত্তি করেন জননীর গ্রন্থাগার সম্পাদক মুহাম্মদ গোলাম আউলিয়া। গজল পরিবেশন করেন যথাক্রমে ৬ ষ্ঠ শ্রনীর মাহামুদা, জান্নাতুন,মিথি,দেশের­ গান পরিবেশন করে ৭ ম শ্রনীর মিমি, নওশীন, পূর্নিমা,আয়েশা,প্রীত­ি,মারিয়া, ফোক গান পরিবেশন করেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক আ: জলিল ও সুজন। সুবর্ণলতা সংগীত বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রী আধুনিক,দেশের,ফোক,ভাও­য়াইয়া,ভাব সংগীত পরিবেশন করেন যথাক্রমে বাবুল,সাথী,রিজিয়া,বি­থী,উত্তম কুমার বিষ্ঠু। তবলায় ছিলেন রিপন, বাঁশিতে উত্তম কুমার,হারমোনিয়ামে আ: রশিদ,সাউন্ডে রোজা এবং অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন মুহাম্মদ গোলাম আউলিয়া।।বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close