উন্নয়ন বার্তামহানগর

দেশকে তামাকমুক্ত হিসেবে গড়ে তুলতে চাইলে প্রত্যেকেই নিজ নিজ জায়গা থেকে সচেতন হতে হবে: জেলা প্রশাসক

প্রেসবিজ্ঞপ্তি: রাজশাহী মহানগরসহ জেলার সকল হসপিটালিটি সেক্টরকে তামাকমুক্ত করতে নির্দেশনা প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম আব্দুল কাদের। গতকাল রবিবার নগরীর নানকিং দরবার হলে ‘হসপিটালিটি সেক্টরে তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম বাস্তবায়ন কৌশলপত্র বিষয়ক এক ওরিয়েন্টেশন সভায়’ প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ‘ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন’ ও রাজশাহীর বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘এ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডি’ যৌথভাবে এ সভার আয়োজন করে।
‘ক্যাম্পেইন ফর টোবাকো ফ্রি কিড্স-সিটিএফকে’ এর পৃষ্ঠপোষকতায় অনুষ্ঠিত সভায় জেলা প্রশাসক আরও বলেন, ‘রাজশাহী নগরী তথা দেশকে তামাকমুক্ত হিসেবে গড়ে তুলতে চাইলে প্রত্যেকেই নিজ নিজ জায়গা থেকে সচেতন হতে হবে। ধূমপায়ীদের ভাবা উচিত- তার ধূমপানের ধোঁয়ায় নিজে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি তার কাছের লোকটিও ক্ষতির শিকার হচ্ছে। এজন্য নিজের পরিবার তথা ছেলে-মেয়ের ভতিষ্যতের কথা চিন্তা করে ধূমপায়ীদের ধূমপান পরিহার করা উচিত। মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে শুধু দুইশত, পাঁচশত কিংবা হাজার টাকা করে জরিমানার মাধ্যমে তামাক নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। কাজেই আমাদের সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমেই কেবল ধূমপানমুক্ত সমাজ গড়া সম্ভব।’
রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর পরিচালক মো. সাদরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ওরিয়েন্টেশন সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আবু হায়াত মো. রহমতুল্লাহ ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এএফএম আঞ্জুমান আরা বেগম।
‘ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন’ এর প্রোগ্রাম অফিসার শারমিন রহমানের সঞ্চালনায় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন- এসিডি’র নির্বাহী পরিচালক সালীমা সারোয়ার। এ সময় পাওয়ার পয়েন্টে ‘হসপিটালিটি সেক্টরে তামাক নিয়ন্ত্রণ কৌশলপত্র বিষয়ক’ তথ্য চিত্র উপস্থাপন করেন ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন এর সহকারী পরিচালক ও তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রোগ্রাম এর প্রকল্প সমন্বয়কারী মো. মোখলেছুর রহমান।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- ‘সিটিএফকে’ এর গ্র্যান্টস্ ম্যানেজার মো. আব্দুস সালাম মিয়া, এসিডি’র পরিচালক (প্রোগ্রাম) শারমিন সুবরীনা, রেঁস্তোরা মালিক সমিতি রাজশাহী জেলা শাখার সভাপতি রিয়াজ আহমেদ খান, রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মহিলা কাউন্সিলর (জোন-৭) মোসা. উম্মে সালমা, মুসলিমা বেলী (জোন-৩) প্রমুখ।
সভায় অন্যদের মধ্যে সিটিএফকে এর ডিজিটাল মিডিয়া ম্যানেজার সরকার শাম্স বিন শরীফ, এসিডি’র তামাক নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের প্রোগ্রাম ম্যানেজার মো. শাহিনুর রহমান, মিডিয়া ম্যানেজার আমজাদ হোসেন শিমুল, এ্যাডভোকেসি অফিসার মো. শরিফ্লু ইসলাম শাামীম, প্রোগ্রাম অফিসার কৃষ্ণা রাণী বিশ্বাস ও তুহিনুল ইসলাম এবং আবাসিক হোটেল, হোটেল-রেস্টুরেন্ট, পর্যটন মোটেল, পার্ক এর প্রতিনিধিবৃন্দসহ বিভিন্ন সরকারি অফিসের কমকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। ওরিয়েন্টেশন সভায় হসপিটালিটি সেক্টরকে কীভাবে শতভাগ তামাকমুক্ত করা যায় অংশগ্রহণকারীগণ মুক্ত আলোচনার মাধ্যমে তাদের মতামত তুলে ধরেন।

Close