বাগমারাশিরোনাম

বাগমারায় যুবককে জবাই করে হত্যা, আটক এক

আব্দুল মতিন, বাগমারা (রাজশাহী) প্রতিনিধি : রাজশাহীর বাগমারায় ধান ক্ষেতে এক যুবককে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। নিহত যুবকের নাম কামরুল ইসলাম (২৮)। তিনি উপজেলার বড়বিহানালী ইউনিয়নের মরুরীপাড়া এলাকার আমবাড়িয়া গ্রামের চয়েন উদ্দীনের ছেলে। ওই ঘটনায় পুলিশ রঞ্জু (৪৮) নামের এক দাদন ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে। দাদন ব্যবসাকে কেন্দ্র করে এই ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে বলে পুলিশ ধারনা করছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে কামরুল ইসলাম তার চাচাতো ভাই মাহাবুরের মটরসাইকেল নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। সে রাতে বাড়িতে ফিরে না আসায় পরিবারের লোকজন বিভিন্ন জায়গায় খুঁজাখুজি শুরু করে। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ৮ দিকে এলাকার লোকজন বিলসতি বিলের রাস্তায় মটরসাইকেলটি পড়ে থাকতে দেখে। লোকজনের মধ্যে সন্ধের সৃষ্টি হলে তারা মটরসাইকেলের কাছে গিয়ে কামরুল ইসলামের জবাই করা লাশটি দেখতে পায়। লোকজনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে আসে এবং নিহত কামরুলের লাশটি দেখতে পায়। বিষয়টি মুঠোফোনে বাগমারা থানার পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং নিহত কামরুল ইসলামের লাশের সুরুতহাল রিপোর্ট তৈরী করে লাশটি ময়না তদন্তের জন্য উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকা সন্দেহে রঞ্জু নামের এক দাদন ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করে। এলাকার লোকজন জানান, নিহত কামরুল ইসলাম দীর্ঘদিন থেকে এলাকায় দাদন ব্যবসা চালিয়ে আসছে। দাদন ব্যবসাকে কেন্দ্র করে হত্যার ঘটনা ঘটতে পারে বলে অনেকই ধারনা করছেন।
বাগমারা থানার ওসি আতাউর রহমান জানান, কামরুল ইসলামকে ধারালো ব্লেট দিয়ে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাবাদের জন্য রঞ্জু নামের এক দাদন ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রকৃত ঘটনা উৎঘাটনের জন্য পুলিশ দাদন ব্যবসাসহ বিভিন্ন দিক নিয়ে তদন্ত শুরু করেছেন বলে তিনি জানিয়েছেন। হত্যার সাথে যারাই জড়িত থাকুক অল্প সময়ের মধ্যে সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে বলে তিনি জানান। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close