মহানগরশিরোনাম-২

নগরীতে রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

বিশেষ প্রতিনিধি: নগরীতে রাস্তা বন্ধ করে প্রাচীর দেওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেন ভুক্তভূগী এ্যাডভোকেট মাইনুল আহসান পান্না। গতকাল বুধবার দুপুরে নগরীর শিরোইল এলাকার একটি বাড়িতে এই সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পাঠ মাইনুল বলেন, তাদের পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে জেলা জজ ৩য় আদালতে ফুফুর ৫ মেয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেন। যার নম্বর ৭৮/২০০১। এখনো মামলা চলমান রয়েছে। মামলায় কোন সুরাহা না সত্ত্বেও এবং আদালত কর্তৃক নিষেধাজ্ঞা ও শো-কজ পেলেও তা অমান্য করে গতকাল ফফুর মেয়েদের নির্দেশে মুল ফটকে তালা এবং ভিতরে ইটের খামাল দিয়ে রাস্তা বন্ধ করে দেয়। এখানে একটি মাদ্রাসা রয়েছে। মাদ্রাসায় অনেক শিক্ষার্থী ও শিক্ষক রয়েছে। সেইসাথে তাঁরাও এই রাস্তা দিয়ে মুল রাস্তায় বের হন । কিন্তু বিবাদিদের অত্যাচারে এখন তারা অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন।
তিনি জানান, পৈতিক সূত্রে তাদের ২.০৬১০ (প্রায় ৬ বিঘা) একর জমি আছে। এর মধ্যে ১.০৩৫০ একর হচ্ছে তাদের। এই জমি বাটোয়ারা নিয়ে ফরিদা রহমান, দিলরুবা, নার্গিস ও ফৌজিয়ার নামে আদালতে মামলা চলছে। এই মামলার বাদি তিনিসহ আরো পাঁচজন রয়েছেন। এই জমির দাগ নম্বর ৩২৪১-৩২৪৮ ও ৩২৬৯, ৩২৭৯। আর. এস. খতিয়ান নম্বর- ৬৮৮ ও জেল নম্বর- ১৩৪।
তিনি আরো বলেন, বিবাদীদের কিছু জমি হুকুম দখল হয়ে গেছে। এখন বিবাদীদের দাবী এই জমি থেকে সামনে রাস্তার অংশে ভাগ নিবে। আর তাদেরকে ভেতরের অংশে ভাগ দেবে। এই নিয়ে ২০০১ সাল থেকে বাটোয়ারা মামলা করা হয়, যা এখনো চলমান। এছাড়া গত এক মাস আগে বিবাদী লোকজন নিয়ে তাদের উপর হামলা চালায় বলে দাবী করেন মাইনুল। এনিয়ে থানায় অভিযোগ জানানো হলে পুলিশ এসে সকল বিষয় তদন্ত করেন। গতকাল পুনরায় আবার তাদের চলাচলের রস্তা বন্ধ করে দেয় বলে বক্তব্যে উল্লেখ করেন। মাইনুল আরো বলেন, এখন তারা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন এবং নিরাপত্তাহীনতার ভূগছেন। এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য আইনশৃংখলা বাহিনী ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

Close