মহানগরশিরোনাম-২

রাজশাহী মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুর্ত্তজা ফামিমকে গ্রেফতারে নিন্দা ও প্রতিবাদ

রাজশাহী মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি
মুর্ত্তজা ফামিমকে গ্রেফতারে নিন্দা ও প্রতিবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক: সোমবার রাজশাহী নগরীর সাহেব বাজার থেকে রাজশাহী মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি
মুর্ত্তজা ফামিমকে আটক করে পুলিশ। রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে তাকে গ্রেপ্তার করেছে বলে দাবি ছাত্রদলের। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মুর্ত্তজা ফামিমকে আটকের প্রতিবাদ, নিন্দা জানিয়েছে ছাত্রদল। অবিলম্বে তাকে মুক্তি না দেয়া হলে, সাধারণ ছাত্রজনতাদের নিয়ে কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছে তারা।
এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গতকাল ২০শে মে ২০১৯ ইং, সোমবার দিবাগত রাত্রে (রাত অনুমানিক ১১.৪০) রাজশাহী নগরীর সাহেব বাজার থেকে রাজশাহী মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি
মুর্ত্তজা ফামিমকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
শাসকদলের অপকর্ম ঢাকতে এবং বিরোধীমতকে নির্মূলের চলমান ষড়যন্ত্রের অংশ হিসাবে তাকে গ্রেপ্তার করে সাজানো মামলায় আটক দেখিয়ে কারাগারে প্রেরন করা
হয়।
জোরপূর্বক ক্ষমতায় টিকে থাকতে ও রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যবহার করে বিরোধীদলের উপর দমন-পীড়ন আরও তীব্রতর করতে জনপ্রিয় ছাত্রনেতাদের উপর এই ধরনের গ্রেফতার
অভিযান চালানো হচ্ছে।
রাজশাহী মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুর্ত্তজা ফামিমকে গ্রেপ্তারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদসহ অবিলম্বে তার নি:শর্ত মুক্তির দাবী জানিয়েছেন ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সদস্য ইলিয়াস বিন কাশেম, রাজশাহী মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আসাদুজ্জামান জনি,সাধারন সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি, সাংগঠনিক সম্পাদক মাকসুদুর রহমান সৌরভ, সহ-সভাপতি সারওয়ার জাহান শিবলী, গোলাম রাব্বানি, যুগ্ম সম্পাদক আকবর আলী জ্যাকি, নাহিন আহম্মেদ সহ মহানগর ও মহানগর অন্তধীন সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,থানা, ওয়ার্ড ছাত্রদলের সকল নেতৃবৃন্দ। রাজশাহী মহানগর জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল, আটক সকল রাজবন্দিদের
বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা ও ”গায়েবী” মামলা প্রত্যাহার সহ তাদের অবিলম্বে মুক্তি না দেয়া হলে, সাধারণ ছাত্রজনতাদের নিয়ে কঠোর কর্মসূচী দিতে বাধ্য হবে। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close