বিনোদন

‘আসল বেদের মেয়ে জোৎস্না’ যোগ দিলেন বিজেপিতে

বিনোদন ডেস্ক: বিজেপিতে যোগ দিলেন আরও এক অভিনেত্রী। আটের দশকের শেষে জনপ্রিয় সিনেমা ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’-র অঞ্জু ঘোষের হাতে পদ্ম পতাকা তুলে দিলেন দিলীপ ঘোষ। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি বলেন,”পার্টির তরফ থেকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। রাজনীতিতে এসে সফল হবেন”।
১৯৮৯ সালে বাংলাদেশে মুক্তি পেয়েছিল ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’। ১৯৯১ সালে ছবিটির রিমেক হয় কলকাতায়। ওপার-এপার বাংলায় এই ছবিটি এখনও পর্যন্ত বক্সঅফিসে সবচেয়ে বেশি উপার্জন করেছে। দুটি ছবিতেই মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন অঞ্জু ঘোষ। জন্মসূত্রে যিনি বাংলাদেশের নাগরিক। তবে ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’-র সাফল্যের পর কলকাতায় চলে আসেন অঞ্জু। বুধবার তিনি যোগ দিলেন গেরুয়া শিবিরে। দিলীপ ঘোষের কথায়,”অরিজিনাল ‘বেদের মেয়ে জোৎস্না’ এলেন আমাদের দলে। সল্টলেকে আমার বাড়ির পাশে থাকেন উনি”।
এদিন উত্তর ২৪ পরগনার বাদুড়িয়ার বাজিতপুর গ্রামপঞ্চায়েতের ৭জন কংগ্রেস-সিপিএম-নির্দল সদস্য যোগ দেন বিজেপিতে। দিলীপ ঘোষ বলেন, ”লোকসভা ভোটের পর বহু মানুষ যোগ দিতে চাইছেন। বিজেপি যোগদান মেলা শুরু হয়েছে জেলায় জেলায়। মুর্শিদাবাদের জিয়াগঞ্জে প্রাক্তন চেয়ারম্যান যোগদান করেছেন”।
দিলীপের দাবি, বেশ কয়েকজন বিধায়ক যোগ দিতে চাইছেন। তবে তাঁরা ভয় পাচ্ছেন। আইনি জটিলতায় তাঁদের ফাঁসিয়ে দেওয়া হতে পারে। যাঁরা এসেছেন, তাঁদের বাড়ি ঘিরে বোমা মারা হচ্ছে। তাতেও অবশ্য আটকানো যাচ্ছে না। যোগদান চলছে।
কিন্তু তৃণমূলের নেতারা স্বার্থের জন্য দলবদল করছেন না? দিলীপের ব্যাখ্যা, টিএমসিতে আদর্শ নেই। রাজনৈতিক দলও ছিল না। সিপিএমের অত্যাচার থেকে বাঁচতে চলে এসেছিলেন বহু মানুষ। আমাদের সংগঠনে শৃঙ্খলা আছে। যাঁরা আসছেন জেনেই আসছেন। বাকিটা শিখিয়ে নেব।
মনিরুল ইসলামের যোগদানের পর শুরু হয়েছিল বিতর্ক। তা মেনে নিতে পারেননি বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। উনি কোথায়? কার্যত এড়িয়ে গিয়েছেন দিলীপ। তাঁর দাবি, মনিরুল আছেন, কোথায় আছেন জানা নেই। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close