বাঘাশিরোনাম-২

বাঘায় মাদক বেচাকেনার টাকা নিয়ে দ্বন্দের জেরে আহত ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর বাঘায় মাদক বেচাকেনার টাকা নিয়ে টাকা নিয়ে দুই পক্ষের দ্বন্দ্বের জের ধরে তিনজন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে বাঘা বাসটার্মিনাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে।
আহতরা হলেন, উপজেলার বাসষ্ট্যান্ড এলাকার মিলিকবাঘা গ্রামের কামরুলের ছেলে রুবেল, নুরুজ্জামানের ছেলে সবুজ ও প্রতিপক্ষ নজরুলের ছেলে আজমল। এদের মধ্যে আশংকাজনক অবস্থায় রুবেল ও সবুজকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
জানা গেছে, উপজেলার বেলগাছি গ্রামের বাসিন্দা জনি আহাম্মেদ (২২) বাঘা পুরাতন বাস টার্মিনাল এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে সুমন (২৫) এর কাছে ইয়াবা ক্রয়ের জন্য এক সপ্তাহ পুর্বে ২৪ হাজার টাকা দেয়। ইয়াবা না পেয়ে টাকা ফেরত চাইতে গেলে ঘটনার সুত্রপাত ঘটে। জনি রাজশাহী প্রকৌশল বিশ্ব বিদ্যালয়ের ছাত্র বলে জানা গেছে।
স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার (১৩-০৬-১৯) রাত সোয়া ৯ টার সময় জনির পাওনা টাকা নেওয়ার জন্য ওই এলাকার দুই যুবক রুবেল (২০) এবং সবুজ (২১) কে নিয়ে সুমনের বাড়িতে গিয়ে টাকা ফেরত চায়। টাকা না দেওয়ায় সুমনকে বাড়িতে একা পেয়ে মারপিট করে চলে আসে তারা। পরে সুমন ও তার দুই ভাই আজমল এবং সুজন-সহ অজ্ঞাতনামা আরো তিন-চারজন ধারালো দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বাস টার্মিনাল এলাকায় অতর্কিত হামালা চালিয়ে রুবেল ও সবুজকে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় প্রতিপক্ষ আজমলও আহত হয়। জনি ঘটনা স্থল থেকে সটকে পড়ে।
আহতের উদ্ধার করে স্থানীয় বাঘা হাসপাতালে নেওয়ার পর জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আকতারুজ্জামান গুরুতর আহত দুইজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠিয়ে দেন। আজমলকে বাঘা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহাসীন আলী জানান, এ বিষয়ে পৃথক দুটি অভিযোগ করেছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close