চারঘাটশিরোনাম-২

সবুজ পাট গাছে সোনালী স্বপ্ন চারঘাটের কৃষকদের চোখে

মোঃ সজিব ইসলাম, চারঘাট প্রতিনিধিঃ সোনালী আশেঁর দেশ বাংলাদেশ। এক সময় এদেশের প্রধান অর্থকারী ফসল সোনালী আশঁ হিসাবে খ্যাত পরিবেশ বান্ধব পাট চাষে দিন দিন চাষীদের আগ্রহ হারালেও চলতি মৌসুমে রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় পাট চাষে আগ্রহ বেড়েছে। পাট চাষের সুদিন ফিরে আসতে শুরু করেছে এ উপজেলায়। গ্রামগুলির সবুজ শ্যামল বিস্তীর্ণ মাঠ ঘুরে দেখা যায়, বাতাসের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দোল খাচ্ছে লিকলিকে শরীরে বাড়তে থাকা সবুজ পাটগাছ।কোমর ছাড়িয়ে বুক সমান উচ্চতায় বেড়ে উঠা এসব পাট ক্ষেতের পরিচর্যায় ব্যস্ত কৃষক-শ্রমিকরা। সতেজতা ছড়ানো সবুজের আবিররাঙ্গা এ পরিবেশ চোখের সামনে তুলে ধরে শ্যামল বাংলার প্রাকৃতিক মুগ্ধতা।

অনেকেই এখন পাট চাষ করে আবার ভাগ্য বদলানোর স্বপ্ন দেখছেন। ন্যায্যমূল্য পেলে আগামীতেও ব্যাপকভাবে পাট চাষ করবেন বলে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন চাষীরা।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে উপজেলায় ১ হাজার ৩১০ হেক্টর জমিতে পাট চাষ হচ্ছে।যা গত বছরের তুলনায় ২৩৫ হেক্টর বেশি। পাটের ফলন ও দাম ভালো পাওয়ায় চাষীদের মাঝে পাট চাষের আগ্রহ পরিলক্ষিত হচ্ছে।
সরেজমিন দেখা যায়, এবার উপজেলার চরাঞ্চলসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের জমিতে পাট চাষ করা হয়েছে। চাষীরা পাট গাছের পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। গত কয়েক বছর ধরে ধান ও সবজি চাষ করে আশানুরুপ ফল না পাওযায় চাষীরা আবার পাট চাষ শুরু করে দিয়েছেন। ফলে ফিরে আসতে শুরু করেছে, সোনালী আশেঁর সুদিন।

স্থানীয় পাট চাষীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, পাট চাষে উৎপাদন ব্যয়বৃদ্ধি, দরপতন ও পাট পচানোর পানি সংকটসহ বিভিন্ন কারণে বিগত বছর গুলোতে পাট চাষ করে চাষীদের লোকসান গুণতে হয়েছে। ফলে পাট চাষ করা থেকে নিজেদের মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন তারা। কিন্তু বর্তমানে সরকারের উদ্যোগে দেশ-বিদেশে পাট ও পাটজাত পণ্যের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় আবার পাট চাষে চাষীদের আগ্রহ বাড়ছে।

উপজেলার শলুয়া ইউনিয়নের চকগোচর গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানসহ বেশ কয়েক জন পাট চাষী জানান, সরকারের নানামুখী কার্যকর পদক্ষেপের কারণে বর্তমানে পাটের চাহিদা ও বাজার দর খুবই ভালো। এছাড়াও পাটকাঠি থেকে বাড়তি আয় করা যায়। এজন্যই পাট চাষে চাষীদের আগ্রহ বাড়ছে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মুনজুর রহমান জানান, পরিবেশ বাদ্ধব বলেই পাটের বহুমখী ব্যবহার হচ্ছে। সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের ফলে দেশে-বিদেশে পাট ও পাট পন্যের চাহিদা বেড়েছে। পাট চাষে জমি উর্বর শক্তি বৃদ্ধি পায়। ফলে এসব জমিতে অন্যান্য ফসলেরও ভালো ফলন পাওয়া যায়। তাই চাষীরা ব্যাপকহারে আবার পাট চাষ করছেন।
বরেন্দ্র বার্তা/ নাসি

Close