আন্তর্জাতিক

নারীদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য: ক্ষমা চাইলেন দালাই লামা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নারীদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন তিব্বতের আধ্যাত্মিক নেতা দালাই লামা। মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তার কার্যালয়ের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে ক্ষমাপ্রার্থনা করা হয়। খবর এনডিটিভির।
গত মাসে বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে দালাই লামা নিজের উত্তরসূরি হিসেবে কোনো নারীর মনোনীত হওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ভবিষ্যতে যদি কোনো নারী দালাই লামা আসেন তা হলে তাকে আরও আকর্ষণীয় হতে হবে।
নারী বিষয়ে দালাই লামার এমন মন্তব্যে বিতর্ক সৃষ্টি হয়। মঙ্গলবার তার কার্যালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, নারীদের নিয়ে ওই মন্তব্য কৌতুক করে করেছিলেন দালাই লামা। তার এমন মন্তব্যের জন্য আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থনা করেন তারা।
বিবৃতিতে বলা হয়, দালাই লামা যে মন্তব্য করেছেন তাতে কেউ কেউ মর্মাহত হয়েছে। এ কারণে তিনি গভীর অনুতপ্ত ও আন্তরিকভাবে ক্ষমা প্রার্থী। নারীবিষয়ক ওই মন্তব্যকে ভুল বোঝাবুঝির কৌতুক বলে বর্ণনা করা হয় বিবৃতিতে।
বিবৃতিতে আরও বলা হয়, দালাই লামা জীবনভর নারীদের বস্তুবাদী করে তোলার বিরোধিতা করে গেছেন। সমর্থন করে গেছেন নারী-পুরুষের সমতায়।
ভারতে নির্বাসিত থাকা তিব্বতের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের আধ্যাত্মিক নেতা দালাই লামা বিবিসির ওই সাক্ষাৎকারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প থেকে শুরু করে নিজের তিব্বতে ফেরার স্বপ্ন এবং শরণার্থী ইস্যুতে মতামত দেন।
৮৪ বছরে পা দিতে যাওয়া এ নেতা সাক্ষাৎকারে বলেন, ভবিষ্যতে যদি কোনো নারী দালাই লামা আসেন তা হলে তিনি আরও আকর্ষণীয় হবেন।
তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘নৈতিক নীতির অভাব’ এবং তার আবেগকে ‘জটিল’ আবেগ বলে তিব্বতের আধ্যাত্মিক নেতা যে মন্তব্য করেছেন, সে জন্য কোনো ক্ষমাপ্রার্থনা করেননি তিনি। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close