মহানগরশিক্ষাঙ্গন বার্তাশিরোনাম-২

রাবি ছাত্রলীগের ছয় নেতার বিরুদ্ধে লিচু চুরির মামলা

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়াসহ ছয় নেতার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও লিচু চুরির মামলা দায়ের করা হয়েছে। রাজশাহী সিএমএম আদালতে এই মামলায় আগামী ১৬ জুলাই আসামীদের আদালতে হাজিরার জন্য ডাকা হয়েছে। নগরীর হেতেমখা এলাকার আব্দুল্লাহ ইবনে মনোয়ার নামের এক ব্যক্তি গত ১৫ মে এ মামলা দায়ের করেন। বাদী পক্ষের আইনজীবি মিজানুর রহমান বাদশা মঙ্গলবার দুপুরে এই তথ্য জানিয়েছেন।
এই মামলার অন্য আসামীরা হলেন রাবি ছাত্রলীগের সহসভাপতি সাদ্দাম হোসেন, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মাহমুদুর রহমান কানন, উপ আন্তজার্তক বিষয়ক সম্পাদক মেহেদী হাসান আশিক, আইন বিভাগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান আলী ও কর্মী মেহেদী হাসান বিজয়। এছাড়াও ক্যাম্পাসের বহিরাগত কিন্তু ছাত্রলীগ সভাপতির কক্ষে থাকেন মো. আকাশ নামের একজনকেও এই মামলায় আসামী করা হয়েছে।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, মামলার আসামীরাসহ আরও ১৫/২০ জন গত ০৭ মে রাতে বিশ^বিদ্যালয়ের গোদাগাড়ী বাগানে অবৈধ অস্ত্র-সস্ত্রসহ মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে বাদীর কাছ থেকে ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। এসময় তারা বাদীকে দুই দিনের টাকা পৌঁছে না দিলে বাগান থেকে আম ও লিচু না পাড়তে দেয়ার হুমকি দেয়। পরে গত ০৯ মে বিকেলে আসামীরাসহ অজ্ঞাতনামা ১৫/২০ জন মিলে বাগানের প্রায় ১৫ হাজার টাকার লিচু পেড়ে নেয়।
এজহারে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, বাগানের পাহাড়াদার লিচু পাড়তে নিষেধ করলে ছাত্রলীগ সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বাদীকে কিল ঘুষি মারে এবং মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে বাগান হতে দুরে সরে যেতে বলে।
বিশ^বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ৭ মে বিশ^বিদ্যালয়ের একটি বাগানে লিচু পাড়তে যায় রাবি ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মী। এসময় প্রহরীদের মারধরের শিকার হয় এই মামলার আসামী ও ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুর রহমান কানন ও মেহেদী হাসান আশিক। প্রহরীদের মারে এই দুই নেতার হাত ও পা ভেঙ্গে যায়। বর্তমানে তারা চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।
মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবি মিজানুর রহমান বাদশা জানান, আগামী ১৬ জুলাই আসামীদের আদালতে হাজিরা দিতে হবে। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close