বাগমারাশিরোনাম-২

বাগমারায় প্রতিপক্ষের হামলায় দুইজন রক্তাক্ত জখম

আব্দুল মতিন, বাগমারা প্রতিনিধি :দোকানের বাঁকিকে কেন্দ্র করে রাজশাহীর বাগমারায় প্রতিপক্ষের হামলায় দুইজন রক্তাক্ত জখম হয়েছে। আহতরা হলেন, উপজেলার ঝিকরা ইউনিয়নের ইউপি সদস্যা ঝাড়গ্রামের আছিয়া বেগমের ছেলে আকতার হোসেন (১৬) ও জামাই সোহাগ হোসেন (২৪)। খবর পেয়ে বাগমারা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে হামলাকারীদের ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র হাসুয়া,বাঁশের লাঠি ও আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় স্বা¯্য’ কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। ওই ঘটনায় ইউপি সদস্যার স্বামী জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে ১০জনকে আসামী করে বাগমারা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখির করেছেন। ওই ঘটনার পর থেকেই এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে।
থানার লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সন্ধ্যায় উপজেলার ঝিকরা ইউনিয়নের মদখালী বাজারে ইউপি সদস্যার ছেলে আকতার হোসেনের সাথে একই এলাকার আব্দুল মতিন, সাজেদুল ইসলাম, রহিদুল ইসলাম,খাইরুল ইসলাম ও আব্দুল মুহিতের সাথে দোকানের বাঁকী নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আব্দুল মতিন ও তার লোকজন মিলে আকতার হোসেনকে মারধর শুরু করে। বিষয়টি জানতে পেরে আকতার হোসেনের বোন জামাই তাকে উদ্ধারের চেষ্টা করলে হামলাকারীরা বাঁশের লাঠি ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার উপর হামলা চালায়। তাদের হামলায় আকতার হোসেন ও সোহাগ হোসেন রক্তাক্ত জখম হয়। খবর পেয়ে বাগমারা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার ও হামলাকারীদের ব্যবহৃত বাঁশের লাঠি ও ধারালো অস্ত্র হাসুয়া উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন । ঘটনার পর পরই এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ওই ঘটনায় রাতেই আহত আকতার হোসেনের বাবা জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামী করে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেন। ইউপি সদস্যা আছিয়া বেগম জানান, হামলাকারীরা এলাকার চি‎িহ্নত সন্ত্রাসী। তাদের বিরুদ্ধে বাগমারা থানায় জঙ্গি সম্পৃক্ততা ও মদদ দানের অভিযোগ মামলা রয়েছে, যা বর্তমানে বিচারাধীন। তিনি ওই সকল সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ওসি আতাউর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, সন্ধ্যায় ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেছি। ওই ঘটনায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close