বাগমারা

বাগমারার ক্ষুদে বঙ্গবন্ধু ইমন

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর বাগমারায় ইমন বাবু নামে এক ক্ষুদে বঙ্গবন্ধুর সন্ধান পাওয়া গেছে। ইমন বাবু, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণসহ সকল ভাষণ আদ্যপ্রান্ত অবিকল মুখস্থ বলতে পারেন। বাগমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের বড় বড় জনসভায় তাঁর ডাক পড়ে। যে মঞ্চে জাঁদরেল নেতাদের বসার জায়গা হয় না, সেখানে জায়গা করে নিয়েছেন ক্ষুদে বঙ্গবন্ধু ইমন বাবু।
বিগত ২৭ জুলাই ২০১৭ সালে হাটগাঙ্গোপাড়ায় ১০ মেঘাওয়াট সাব-স্ট্রেশন বিদ্যুৎ উদদ্বোধন করেন মাননীয় বিদ্যুৎ-খনিজ ও জ্বালানি মন্ত্রী নসরুল হামিদ। সে মঞ্চে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ প্রদান করে ব্যাপক হাততালি পান এবং আলোচনায় আসেন ইমন বাবু। মাননীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রী নসরুল হামিদ তাঁকে বুকে জড়িয়ে ধরেন।
তাঁর পিতা- ইমরান হোসেন হাটগাঙ্গোপাড়ার স্থানীয় ব্যবসায়ী,মা-বিউটি খাতুন গৃহিণী। ইমন বাবুর জন্ম ২৬শে নভেম্বর ২০০৬ সাল শুভডাঙ্গা ইউনিয়নের বাড়ীগ্রামে। ছেলের এই প্রতিভায় মা-বাবা গর্ববোধ ও দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন। বাবা ইমরান জানান, দিনের পর দিন, রাতের পর রাত অনুশীলন, গবেষণার ফসল আমার ছোট্র ইমন বাবু। সে যখন ৩য় শ্রেণিতে তখন থেকে বঙ্গবন্ধুকে চর্চা করে, জাতির জনকের ভাষণ রপ্ত করে আসছে। তাঁকে প্রথমে মঞ্চে উঠার অনুমতি দিচ্ছিলেন না অনেকে। ইউপি চেয়ারম্যান সরদার জান মোহাম্মাদ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাকিরুল ইসলাম সান্টুর অনুকম্পায় ইমন বাবুর পথচলা ও উত্থান ।
বাগমারা উপজেলা চেয়ারম্যান ও রাজশাহী জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি অনিুল কুমার সরকারের কাছে সরাসরি ইমন বাবু সমন্ধে জানতে চাইলে তিনি বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল দলীয় প্রোগ্রামে ক্ষুদে বঙ্গবন্ধু ইমন বাবুর ভাষণ প্রচার করলে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সমন্ধে নতুন প্রজন্ম অনুপ্রাণিত হবে।
রাজশাহী-৪ বাগমারা আসনের সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক ইমন বাবুর বক্তব্য শুনে সচকিত হন। তাঁর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা সাথে সংসদ ভবনে ইমন বাবুর সাক্ষাত ঘটে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ইমন বাবুর বক্তব্য শ্রবণ করে অর্ধ লক্ষ টাকা পুরস্কার প্রদান করেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁকে বিমান টিকিটের ব্যবস্থা করতে চাইলে, স্বভাব সুলভ ভঙ্গিতে বলেন, আমি যে ভাবে আব্বুর সাথে এসেছি, সেভাবেই আব্বুর সাথে বাড়ী যেতে চাই।
মাননীয় প্রধান মন্ত্রী ইমন বাবুর মাথায় হাত রেখে দোয়া করেন। ইমান বাবু বর্তমানে স্থানীয় হাটগাঙ্গোপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী। ইমন বাবুর সহপাঠী আল মাহামুদ নাদিম জানান, ইমন বাবুর ভাষণ আমাদের অনুপ্রাণিত করে, আমরা বঙ্গবন্ধু জীবন চরিত, মুক্তিযুদ্ধসহ নানা বিষয়ে জানতে পারি।
আরেক সহপাঠী শাহরিন ইমা বলেন, মুক্তিযুদ্ধ কী? মুক্তিযুদ্ধ কী ভাবে সংগঠিত হয়েছিল,মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন বঙ্গবন্ধুর ভাষণ আমাদের পূর্ব পুরুষদের কী ভাবে সাহস জুগিয়েছিল সে সমন্ধে জানতে পেরেছি ।
নরদাশ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ আইন বিষয়ক সম্পাদক কাজেম উদ্দীন ক্ষুদে বঙ্গবন্ধু সমন্ধে স্মৃতি চারণ করতে গিয়ে ইমন বাবুকে দ্বিতীয় বঙ্গবন্ধু হিসাবে আখ্যায়িত করে রাজশাহী-৪ বাগমারা আসনের মাননীয় সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।
মাড়িয় কলেজের প্রভাষক ও গোবিন্দপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহসভাপতি আশরাফুল ইসলাম (বাবু)ক্ষুদে বঙ্গবন্ধু ইমন বাবু সমন্ধে আলোকপাত করতে গিয়ে উল্লেখ করেন, সরকারের উচ্চ মহল যেন এ প্রতিভাকে লালন করে,ধারণ করে,উৎসাহিত করে তাহলে এ ধরণের প্রতিভা বিকশিত হবে। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ অনন্তকাল টিকে রবে।
হাটগাঙ্গোপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম, ইমন বাবুর ভূয়শী প্রশসংসা করে বলেন, সে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ দানের মাধ্যমে অনেক পুরস্কারে ভূষিত হয়েছে এবং স্কুলের জন্য অনেক সুনাম কুড়িয়েছে। কবি কাজী নজরুলের বিদ্রোহী কবিতা আবৃত্তি ও ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে উপস্থিত বক্তব্যে উপজেলা পর্যায়ে প্রথম স্থান অর্জন করে।
অনেকটাই প্রচার বিমুখ ইমন বাবু, এই ক্ষুদে বঙ্গবন্ধুর মাধ্যমে লক্ষ বঙ্গবন্ধুর জন্ম হোক এমটি আমরা প্রত্যাশা করি। নতুন প্রজন্ম যাঁরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে চর্চা করেন, ভালোবাসেন, গবেষণা করেন তাঁদের অনুপ্রেরণা ও পাথেয় হতে পারে ক্ষুদে বঙ্গবন্ধু ইমন বাবু। এক মুজিব লোকান্তরে, লক্ষ মুজিব ঘরে ঘরে। বরেন্দ্র বার্তা/আহো/অপস

Close