চারঘাটশিরোনাম-২

চারঘাট-বাঘা মহাসড়ক এখন মরণফাঁদ!

মো: সজিব ইসলাম,চারঘাট প্রতিনিধি : রাজশাহীর চারঘাট-বাঘা মহাসড়কের কয়েকটি স্থানে রাস্তা দেবে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। এ কারণে রাস্তায় চলতে গিয়ে ঘটছে অহরহ দুর্ঘটনা।

বৃষ্টির পানিতে রাস্তার গর্তগুলো ভরপুর হয়ে মিনি পুকুরের সৃষ্টির হয়।সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতাধীন এই সড়কে মাঝে মধ্যে ভাঙ্গা ইটের সুরকি ফেলে মেরামতের চেষ্টা করলেও তাতে দুই একদিন পরে আরো বেশি জনভোগান্তির কারণ হয়।

জানা যায়, চারঘাট-বাঘা মহাসড়কের ট্রাফিক মোড়,মেডিকেল মোড়,কাকড়ামারীসহ বিভিন্ন স্থানে পাকা রাস্তা দেবে গিয়ে সৃষ্টি হয়েছে বড় গর্তের। ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকটি স্থান এখন মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। ব্যস্ততম এ রাস্তা দিয়ে ঢাকাসহ দক্ষিণাঞ্চলে যাওয়া যানবাহনগুলো রাত-বিরাতে চলতে গিয়ে অহরহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে।

আর এতে চরম ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে রাস্তার ধারে বসবাসকারী লোকজন। গত কয়েক মাস ধরে এভাবে রাস্তা পারাপার করতে গিয়ে মালামালবোঝাই ট্রাকসহ ছোট ছোট যানবাহন প্রতিনিয়তই ঘটছে দুর্ঘটনা। এতে চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পথচারীরা।

সংশ্লিষ্ট দফতরের উদাসীনতা ও ভারী যানবাহন চলাচলের কারনে রাস্তাঘাটের এমন করুন অবস্থা বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

চারঘাট মেডিকেল মোড়ের এক মুদি ব্যবসায়ী জানান, মেডিকেল মোড়ের সামনের রাস্তার উত্তর পাশে একটু বৃষ্টিতেই পানি জমে।কয়েকদিন আগে সেখানে রাস্তা দেবে গিয়ে আটকে যায় পাথর বোঝায় একটি ট্রাক। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় ট্রাকটি উদ্ধার করার পর থেকে সেখানে এখন বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

পিচ উঠে মাটি বের হয়ে গেছে। এতে চরম বেকায়দার মধ্যে দিয়ে চলছে যানবাহন। অপর দিকে একই অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে কাকরামারী এলাকায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জনৈক ব্যক্তি জানান, ব্যস্ততম এ রাস্তাটিতে অধিক ওজনের যানবাহন চলায় প্রতিনিয়তই রাস্তা দেবে যায়। গত কয়েক মাস আগে রাস্তাটি সংস্কার করা হলেও কয়েক মাসের ব্যবধানে রাস্তাটি দেবে গিয়ে পিচ উঠে এখন খানাখন্দে ভরা রাস্তায় পরিণত হয়েছে। এতে রাস্তায় নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

এ বিষয়ে চারঘাট উপজেলা (ভারপ্রাপ্ত) নির্বাহী প্রকৌশলী খলিলুর রহমান জানান, রাস্তাটি আসলে সড়ক ও জনপথ বিভাগের। তারা এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে পারবেন।আমাদের কিছুই করার নেই।বরেন্দ্র বার্তা/হাপি

Close