পুঠিয়াশিরোনাম

পুঠিয়ায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থীর এক কর্মীর উপর হামলা

ষ্টাফ রির্পোট: রাজশাহীর পুঠিয়ায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থীর এক কর্মীর উপর হামলা করেছে কয়েকজন হেলমেট ধারী দুর্বৃত্তরা। অভিযোগ উঠেছে পরিকল্পিতভাবে প্রতিপক্ষকে দমন করতে বহিরাগত সন্ত্রাসী দিয়ে এ হামলা চালনো হয়েছে।
আহত কর্মী হলেন- কবির হোসেন (৩৪)। তিনি আবুল হোসেনের ছেলে। কবির হোসেন ওই ওয়ার্ডের টিউবওয়েল প্রতিকের মেম্বার প্রার্থী নজরুল মন্ডলের কর্মী বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।
রোববার রাতে উপজেলার জিউপাড়া ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড বিলমাড়িয়া খাঁজাপাড়া এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকে নির্বাচনী এলাকার সাধারণ ভোটারদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
জানা গেছে, নির্বাচনী এলাকায় রাতের বেলা হেলমেট পড়া ৬ জন অজ্ঞাত লোক দুটি মোটরসাইকেলে এসে কবিরের পথরোধ করে তার ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। এতে কবিরের দুই পা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়েছে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে প্রেরণ করে।
হাসপাতালে আহত কবির হোসেন বলেন, রাতে বাড়ি থেকে বের হয়ে বাজারে যাচ্ছি পথে মসজিদের কাছে দেখি দুটি মোটরসাইকেল দাঁড়িয়ে আছে। তাদের পার হয়ে কিছু দূর যেতেই মেম্বার প্রার্থীর হয়ে কাজ করছি তার প্রতিপক্ষ প্রার্থী শাহিনের একজন ঘনিষ্ঠ লোক আমাকে ফোন করে কোথায় আছি বলে জানতে চায়। আমি লোকেশন বলার পর পরেই মোটরসাইকেল দুটি এসে আমার পথ রোধ করে লোহার পাইপ দিয়ে এলোপাথাড়ি ভাবে পেটাতে থাকে।
আমার আত্মচিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসায় ততক্ষণে তারা দ্রুত মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়। দু’টি মোটরসাইকেলে হেলমেট পড়া ৬ জন লোক ছিলো তবে তাদের কাউকে সে চিনতে পারেনি তিনি।
মেম্বার প্রার্থী নজরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, আমার প্রতিপক্ষ মোরগ প্রতিকের প্রার্থী পরিকল্পিতভাবে বহিরাগত সন্ত্রাসী দিয়ে আমার কর্মীর ওপর হামলা করেছে। প্রতিনিয়ত আমার ভোটারদের কর্মীদের বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছিলেন।
স্থানীয়রা জানান, নির্বাচনে নজরুল মন্ডলের প্রতিপক্ষ প্রার্থী শাহিন মোরগ প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করছেন। তারা দু’জনই আ.লীগের দলীয় পদে রয়েছেন। হামলার স্বীকার ওই কর্মীও আ.লীগের সমর্থক।
তবে এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শাহিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, প্রতিপক্ষরা আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। নজরুল মন্ডল ও শাহিন ছাড়াও এ ওয়ার্ডে আরো দুই জন প্রার্থী মেম্বার পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তবে শাহিনের সাথে নজরুলের প্রতিদ্বন্দ্বীতা হবে।
পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাকিল উদ্দিন আহম্মেদ জানান, ঘটনা শুনেছি। কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close