গোদাগাড়িশিরোনাম

গোদাগাড়ীতে ছেলেধরা সন্দেহে আটক, পরে জানা গেলো পারিপারিক দ্বন্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক: গোদাগাড়ীতে ছেলে ধরা সন্দেহে ৪ জনকে পুলিশের হাতে তুলে দেয় এলাকাবাসী, পরে জানা যায় পারিবারিক দ্বন্দ্ব। আজ সকালে গোদাগাড়ী উপজেলার খারিজাগাথি এলাকা এই ঘটনা ঘটে।
গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার হরিশপুর গ্রামের এহসান আলী কালু চরবাগডাংগা গ্রামে সেলিনা বেগমের দাম্পত্য জীবন চলছিল কিছুদিন পূর্বে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। পুনরায় তাদের বিষয়টি মীমাংসার জন্য এহসান আলূ কালুর বন্ধু রবিউল ইসলাম তাদেরকে সাথে নিয়ে এলাকার অবসরপ্রাপ্ত বিজিবি সদস্য জালালের বাড়িতে যাই 8 বছরের চাচাতো বোন মৌসুমি কে সাথে নিয়ে।
বিজিবি সদস্য জালালের বাড়ির সামনে মীমাংসার কথাবার্তার একপর্যায়ে গন্ডগোল দেখা দিলে স্থানীয় লোকজন তাদের কাছে আট বছরের শিশুকে দেখে ছেলে ধরা মনে করে ঘিরে ফেলে। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদের উদ্ধার করে পুলিশ ফাঁড়ির হেফাজতে নেই।
গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি জানান এটি ছেলে ধরা নয় পারিবারিক কলহের জেরে ভুল বুঝাবুঝির পর্যায়ে গন্ডগোল হলে স্থানীয় জনগণ ছেলে ধরা মনে করে পুলিশের কাছে দিয়েছে। তারা নিজের হাতে আইন না তুলে পুলিশকে সহযোগিতা করায় তাদের ধন্যবাদ জানিয়েছে। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close