ছবি ঘরমহানগরশিরোনাম

রাজশাহীতে গভীর শ্রদ্ধায় জাতীয় শোক দিবস পালন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ জাতীয় শোক দিবসে গভীর শোক আর শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করেন আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন সংগঠন। নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে যথাযথ মর্যাদায় বিভাগীয় এই শহরে পালিত হয় দিবসটি। শোক দিবস উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার সূর্যদয়ের সাথে
সাথে সকল সরকারি, আধা-সরকারি ও স্বায়ত্বশায়িত প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করে উত্তোলন করা হয়। পুরো নগরীতে মাইকে প্রচার
করা হয় বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ, কোরআন তেলাওয়াত ও দেশাত্ববোধক গান।

জাতির পিতার ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করে তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানান রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা। নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে দলীয় কার্যালয়ের সামনে স্থাপিত অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। পরে দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন তিনি। এ সময় দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে নগর ভবনের সামনে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাজশাহী সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। পরে নগরীর কুমারপাড়ায় মহানগর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ের স্বাধীনতা চত্বরে জাতির পিতা ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। এ সময় নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি খায়রুজ্জামান লিটন ছাড়াও অন্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এরপর সকাল ১০টায় নগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে নগরীতে একটি শোক  পদযাত্রা বের করা হয়। পদযাত্রা শেষে দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল। এতে বঙ্গবন্ধুসহ ’৭৫ এর ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

বেলা ১১টায় রাজশাহী জেলা পরিষদ কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার। পরে জেলা পরিষদে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিবসহ সকল সদস্য, সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের সদস্য এবং কর্মকর্তা- কর্মচারিরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে সকালে নগরীর এএইচএম কামারুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যান ও চিড়িয়াখানার সামনে থেকে শোক পদযাত্রা বের করে জেলা প্রশাসন। র‌্যালিটি নগরীর সিএন্ডবি মোড়ে শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান জেলা পরিষদ মিলনায়তনের সামনে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল।

র‌্যালিতে বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমান, পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শক একেএম হাফিজ আক্তার, রাজশাহী মহানগর পুলিশের
কমিশনার হুমায়ুন কবীর, জেলা প্রশাসক হামিদুল হক ও পুলিশ সুপার শহীদুল্লাহসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অংশ নেন। এছাড়াও রাজশাহীর বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠান র‌্যালিতে অংশ গ্রহন  করেন। র‌্যালি শেষে সকল অংশগ্রহনকারী সকল সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পূস্পস্তবক অর্পন করেন।

এদিকে দিবসটি উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সুবিধা মতো সময়ে রাজশাহীর ইসলামিক ফাউন্ডেশন, দরগা এস্টেট ও হেতেমখাঁ বড় মসজিদে বঙ্গবন্ধুর
জীবন ও কর্মের ওপর আলোচনা সভা, হামদ-নাত প্রতিযোগিতা, মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া রাজশাহী জেলা ও মহানগরের সকল
মসজিদ, মন্দির, গীর্জা ও প্যাগোডায় বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। নগরীর লক্ষ্মীপুর মোড় ও শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান চত্বরে বঙ্গন্ধুর
জীবনীর ওপর প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। দিনটি উপলক্ষে বাংলাদেশ বেতার রাজশাহী কেন্দ্র থেকে প্রচার হয় বিশেষ অনুষ্ঠানমালা। স্থানীয়
সংবাদপত্রগুলোও প্রকাশ করেছে বিশেষ ক্রোড়পত্র। শিশু সদন, সেফহোম, শিশু বিকাশ, হাসপাতাল, কারাগারেও উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়। এসব স্থানেও অনুষ্ঠিত হয় দোয়া মাহফিল।

রাজশাহী ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমির শোক দিবস পালন

রাজশাহীতে গভীর শোক আর শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকী পালন
এদিকে জাতীর পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে  রাজশাহী বিভাগীয় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমি আয়োজনে নানা কর্মসূচী পালন করা হয়। এরমধ্যে সকাল ৯টায় জেলা প্রশাসক এর আয়োজনে র‌্যালিতে তারা যোগদান করেন এবং নগরীর মনিবাজারস্থ শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান মিলনায়তনে শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পন করেন। এরপর ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমি মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অত্র প্রতিষ্ঠানের গবেষণা কর্মকর্তা বেনজামিন টুডু। প্রধান অতিথি ছিলেন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠার কালাচারাল একাডেমির উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সালাহ্উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন একাডেমির নির্বাহী কমিটির সদস্য চিত্তরঞ্জন সরদার, যোগেন্দ্রনাথ সরেন ও গাব্রিয়েল হাঁসদা। সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন একাডেমির সংগীত প্রশিক্ষক মানুয়েল সরেন। সভা পরিচালনায় ছিলেন নাটক প্রশিক্ষক লুবনা রশিদ সিদ্দিকা।

অন্যদের মধ্যে একাডেমির সংগীত প্রশিক্ষক কবীর আহম্মেদ বিন্দুসহ একাডেমির অন্যান্য কর্মচারী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন, স্বাধীনতার পটভূমি ও স্বপরিবারে নির্মম হত্যা বিষয়ে প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ আলোকপাত করেন। আলোচনা শেষে কবিতা আবৃতি, বঙ্গবন্ধুর উপরে রচনা ও চিত্রাঙ্কক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। শেষে আদিবাসী শিল্পিদের অংশগ্রহনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের শোক দিবস পালন

রাজশাহীতে গভীর শোক আর শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকী পালন
এদিকে জাতীর পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে  রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের আয়োজনে দিনব্যাপি নানা কর্মসূচী পালন করা হয়। সকালে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ সপুরাস্থ কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালি নিয়ে নগরী বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে কুমারপাড়াস্থ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পন করেন। র‌্যালিতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ আলী, তত্ববধায়ক প্রকৌশলী আমিরুল হক ভূঁইয়া, নির্বাহী প্রকৌশলী সৈয়দ সাহিদুল ইসলাম ও উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী আসিফ আহম্মেদসহ অত্র প্রতিষ্ঠানের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বিকেলে পানি উন্নয়ন বোর্ড জামে মসজিদে বঙ্গবন্ধুসহ তাঁর পরিবারের নিহত সকল সদস্যের রুহের মাগফিরাত কামনায় মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

রাজশাহী শহীদ বুদ্ধিজীবী সরকারী কলেজে শোক দিবসের আরেলাচনা সভা

রাজশাহীতে গভীর শোক আর শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকী পালন

এদিকে জাতীর পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে  রাজশাহী শহীদ বুদ্ধিজীবী সরকারী কলেজের আয়োজনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ ড. মোয়াজ্জেম হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শেখ হাফিজুল বারী, সহযোগি অধ্যাপক সৈয়দ নাদিম আখতার ও নিশাত সুলতানা। এছাড়াও সহযোগি অধ্যাপক আজমারুল হক.ও আমেনা আখতার জাহানসহ কলেজের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। সভাপতিসহ উপস্থিত সকলেই বঙ্গবন্ধুর জীবন ও ঐতিহাসিক ঘটান নিয়ে
আলোচনা করেন। শেষে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের নিহত সকল সদস্যের রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয় করা হয়।

রাজশাহী ওয়াসা’র শোক দিবস পালন

রাজশাহীতে গভীর শোক আর শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকী পালন

এদিকে জাতীর পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে  আজ বৃহস্পতিবার রাজশাহী ওয়াসা শোক দিবস পালন করেন। সকালে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে র‌্যালিতে ওয়াসার কর্মকর্তারা অংশ গ্রহন করেন। পরে তারা শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান জেলা পরিষদ মিলনায়তনের সামনে অস্থায়ী ভাবে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পন করেন। এসময়ে উপস্থিত ছিলেন উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশল এ.কে.এম আমিরুল ইসলাম, তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী পারভেজ মামুদ, সহকারী প্রকৌশলী রেজাউল হুদা, ইকবাল হোসেন, সোহেল রানা, মাহবুবুর রহমান, উপসহকারী প্রকৌশলী ফারুক আহম্মেদ ও আব্দুর রহিমসহ অত্র প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

রাজশাহী প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শোক দিবস পালন

রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যায়ের উদ্যোগে আজ বৃহস্পতিবার নানা আয়োজনে শোক দিবস পালণ করা হয়। সকাল ১০ টায় কালো ব্যাজ ধারণ, শোক র‌্যালি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, ১৫ আগস্টের শহীদদের স্মরণে ১ মিনিট নিরাবতা পালন, বৃক্ষরোপন ও বাদ আসর রুয়েট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া করা হয়। এছাড়াও সূর্যোদয়ের সাথে সাথে প্রশাসনভবন ও হলসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা ও শোকের প্রতীক কালো পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়এ সকল

কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. রফিকুল ইসলাম শেখ।
আরোও উপস্থিত ছিলেন অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. সেলিম হোসেন, বিভিন্ন অনুষদের ডীনবৃন্দ, পরিচালক ছাত্রকল্যাণ ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৯” উদযাপন কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. রবিউল আওয়াল, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন পরিচালক প্রফেসর ড.মিয়া মোঃ জগলুল সাদাত, গবেষণা ও সম্প্রসারণ পরিচালক প্রফেসর ড. ফারুক হোসেন, আইকিউএসি এর পরিচালক প্রফেসর ড. মোশাররফ হোসেন, আইআইসিটির পরিচালক প্রফেসর ড. শহিদুজ্জামান, শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. কামরুজ্জামান সরকার, বিভাগীয় প্রধানবৃন্দ,
উপ-পরিচালক ছাত্রকল্যাণ মামুনুর রশিদ,আবু সাঈদ,হলের প্রভোস্টবৃন্দ, কর্মকর্তা সমিতি সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মুফতি মাহমুদ রনি, রুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈম রহমান নিবিড়, কর্মচারী সমিতির সভাপতি মহিদুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আসলাম উদ্দীন সহ বিভিন্ন দপ্তর প্রধানবৃন্দ, শাখা প্রধানবৃন্দ, শিক্ষাার্থীবৃন্দ প্রমুখ।

ঙ্গবন্ধুর শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে সিটি কর্পোরেশনের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

জাতীয় শোক দিবস-২০১৯ উপলক্ষে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ
বৃহস্পতিবার সকালে নগর ভবনের ওয়ান স্টপ চত্বরে এসব কর্মসূচি পালিত হয়। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাওগাতুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্যানেলমেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু। প্রধান আলোচক ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের প্রফেসর শাহ আজম শান্তনু।
আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন ২১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযীম, ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহমেদ, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান, প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক, তত্তাবধায়ক প্রকৌশলী খন্দকার খায়রুল বাশার, কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আজমেরি আহম্মেদ মামুন। মঞ্চে উপবিস্ট ছিলেন প্যানেল মেয়র-৩ ও ১নং সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর তাহেরা খাতুন, ২৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ারুল আমিন আযব, ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, ১০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্বাস আলী সরদার, সচিব আবু হায়াত মোঃ রহমতুল্লাহ। পরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ১৫ আগস্টে শাহাদতবরণকারী সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন সিটি কর্পোরেশন মসজিদের পেশ ইমাম আবুল খায়ের।

১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জননী গ্রন্থাগার ও সাংস্কৃতিক সংস্থার উদ্দ্যেগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়’।বৃহঃপ্রতিবার সন্ধায় রাজশাহী মহানগরীর কয়ের দাঁড়াস্থ জননী গ্রন্থাগারের কার্য্যলয়ে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন জননী গ্রন্থাগারের প্রতিষ্ঠাতা বই বন্ধু আমিনুল হক রিন্টু। মিলাদ ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মৌঃ ইসমাইল হোসেন তুফানি।

জননী গ্রন্থাগারের উদ্দ্যেগে জাতীয় শোক দিবস পালন

আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন জাতীয় কবিতা মঞ্চের রাজশাহীর সভাপতি কবি মুকুল হোসেন, রাবির সহকারী রেজিঃ সালেহ্ হামিম টুটুল, জয় বাংলা পরিষদের রাজশাহী শাখার যুগ্ম আহব্বায়ক হানিফ খন্দকার, রাবির গবেষক সারোয়ার জাহান, গ্রামীন ব্যাংকের অফিসার এশার উদ্দিন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জসিম উদ্দিন, জননী গ্রন্থাগারের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস লিজা, সহঃ সভাপতি রিজিয়া খাতুন, কিশোরী ক্লাবের সভাপতি লাবনী পারভীন, সদস্য বিথী খাতুন প্রমখ।
আলোচনায় বক্তারা,জাতীর জনক বঙ্গ বন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনের বিভিন্ন দিক আলোকপাত করেন। সেই সাথে বঙ্গ বন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ণে এক সাথে কাজ করার আহব্বান জানান।
বরেন্দ্র বার্তা/ ফকবা/ নাসি

Close