মহানগরশিরোনাম-২

রাজশাহীর দর্শনপাড়া ইউনিয়নে জেলা বিএনপি’র লিফটেল বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রতিহিংসার বিচারে বন্দি, গণতন্ত্র, স্বাধীনতা- সার্বভৌমত্ব ও জনগণের আস্থার প্রতীক বিএনপি চেয়ারপার্সন সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে রাজশাহীর দর্শনপাড়া ইউনিয়নে লিফলেট বিতরণ করে রাজশাহী জেলা বিএনপি। দর্শনপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র আয়োজনে লিফলেট বিতরণ ও পথ সভায় সভাপতিত্ব করেন দর্শনপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আব্দুস সালাম। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা বিএনপি’র আহবায়ক আবু সাইদ চাঁদ, আহবায়ক কমিটির সদস্য আলী হোসেন, শাহাদত হোসেন সরকার হাবীব, অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম, ও সদস্য আব্দুর রাজ্জাক।
আরো উপস্থিত ছিলেন হরিয়ান ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আব্দুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম, দর্শনপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সহ-সভাপতি আতাহার আলী, আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, ইনতাজ আলী, মোরশেদ আলী, আব্দুল মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মান্নান, আরেজুল ইসলাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হাসান আলী, সাবেক সভাপতি আইনাল হক, দর্শনপাড়া ইউপি সাবেক চেয়ারম্যান রমজান আলী, ১নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি খলিলুর রহমান, ৪নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক সেলিম উদ্দিন, ৩নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এলাম উদ্দিন, ৫নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ সম্পাদক কামরুজ্জামান হেনা, জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি মোজাফ্ফর হোসেন মুকুল, সহ-সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল ইসলাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান, সদস্য রফিকুল ইসলাম ও শুভ,
জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম জনি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল আমিন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আজাবর রহমান, জিয়াউর রহমান জনি, ছাত্রদল নেতা সাহেব, রানা, সৌরভ, হানিফ, মহানগর ছাত্রদল নেতা সান, দর্শনপাড়া ছাত্রদলের সভাপতি লুৎফার রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আসলাম আলীসহ বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের অন্যান্য নেতাকর্মী।
উপস্থিত নেতৃবৃন্দ দর্শনপাড়ার মরমড়িয়া বাজারে লিফলেট বিতরণ করেন। এসময়ে নেতাকর্মীরা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দেন। বিতরণ শেষে পথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মিলন বলেন, এই সরকার সকল ক্ষেত্রে ব্যার্থ হয়েছে। ডেঙ্গু দেশব্যাপি মহামারী আকার ধারণ করলেও প্রতিরোধ ও এডিশ মশার মারা এবং লারভা ধ্বংস করতে সম্পূর্ণ ব্যার্থ। ফলে অনেক মানুষের ইতোমধ্যে প্রাণ গেছে। অনেক মানুষ এখনো প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছে এবং চিকিৎসাধীন রয়েছে। তিনি আরো বলেন, এই সরকারে এমপি মন্ত্রী ও ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে চামড়ার দাম একবারেই কমিয়ে দিয়েছে। চামড়া শিল্পকে ধ্বংস করার পাঁয়তারায় লিপ্ত হয়েছে। সেইসাথে দরিদ্র ও অসহায় মানুষের হক্ক্ নষ্ট করেছে। সরকারের আমলা, এমপি ও মন্ত্রীরা দূর্নীতির চড়ম শিখরে পৌঁছে গেছে। অথচ কোন প্রকার দূর্নীত না করেও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে দেড় বছর ধরে জেলের অন্ধকারে থাকতে হচ্ছে। জামিন হলেও সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসা করে তাঁকে জামিন দিচ্ছেন না। আগামী সেপ্টেম্বর মাসের দিতীয় সপ্তাহে বেগম জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে রাজশাহীতে বিভাগীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। আর এই সমাবেশ থেকে সরকার পতনের আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। সমাবেশে সকল নেতাকর্মীকে অংশগ্রহন এবং আন্দোলনের শরীক হওয়ার আহবান জানান মিলন। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close