মহানগরশিরোনাম-২

ছোট বোনের স্বামীকে হত্যায় যুবকের ফাঁসির আদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : ছোট বোনের স্বামীকে ছুরি মেরে হত্যার দায়ে যুবকের ফাঁসির আদেশ দিয়েছে রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল। একইসঙ্গে তার ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। রোববার দুপুরে বিচারক অনুপ কুমার এ রায় ঘোষণা করেন।
মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামীর নাম রনি আহমেদ (২৯)। সে নগরের মতিহার থানার কাজলা কেডি ক্লাব পশ্চিমপাড়ার হাবিবুর রহমানের ছেলে। মামলায় রবিন বাবা হাবিবুর রহমান (৫০) আসামি থাকলেও তার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় আদালত তাকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন।
আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এন্তাজুল হক বাবু জানান, মামলায় প্রত্যক্ষদর্শী পাঁচজন সাক্ষী ছিলেন। সমস্ত সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত এ রায় ঘোষণা করলেন।
তিনি বলেন, আসামি রনি গ্রেপ্তার হওয়ার পর উচ্চ আদালত থেকে জামিনে ছিলেন। মামলার যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের দিন থেকে তিনি পলাতক। তার অনুপস্থিতিতেই রায় ঘোষণা করা হয়েছে। তবে রায় ঘোষণার সময় আসামি হাবিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তিনি বেকসুর খালাস পেয়েছেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, হাবিবুরের জামাতা বিপ্লব হোসেনকে (২৩) ২০১৭ সালের ৩ মার্চ ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। বিপ্লবের বাড়িও একই এলাকায়। তার বাবার নাম এরশাদ আলী। বিপ্লবকে হত্যার ঘটনায় নগরীর মতিহার থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন তার বড় ভাই আসাদ জামান ওরফে বুলবুল। তবে অভিযোগপত্রে একজনকে বাদ দিয়ে দুইজনকে আসামী করা হয়।
মামলার বাদী জানান, বিপ্লব ভালোবেসে রনির বোন লিজা খাতুনকে বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু এই বিয়ে মেনে নেননি রনি। এ নিয়ে রনি ও বিপ্লবের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। ২০১৭ সালের ৩ মার্চ বাড়ির সামনে ইট রাখাকে কেন্দ্র করে বিপ্লব ও রনির মধ্যে কথা-কাটাকাটি শুরু হয়। এরই একপর্যায়ে বিপ্লবকে ছুরিকাঘাত করে রনি পালিয়ে যান। এতে ঘটনাস্থলেই বিপ্লব মারা যান। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close