অর্থ ও বাণিজ্য

বাংলাদেশের চেয়ে মাত্র ১৪ পয়সা এগিয়ে ভারত!

অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক: ভারতের জন্যে সামনের দিনে আসছে চূড়ান্ত অর্থনৈতিক সংকট–বিরোধীদের এই দাবি উড়িয়ে দিচ্ছে মোদী সরকার। তবে বাংলাদেশি টাকার তুলনায় ভারতের মুদ্রার দাম যেভাবে কমছে, তাতে অশনি সংকেত দেখছেন দেশটির অর্থনীতিবিদরা। দু’দেশের মুদ্রার দামে পার্থক্য এখন মাত্র ১৪ পয়সা। যা খুশির কারণ বাংলাদেশিদের জন্য।
ডলারের বিপরীতে ভারতীয় টাকার দাম ক্রমেই কমে যাচ্ছে। সেই তুলনায় বাংলাদেশি মুদ্রা ভারতের তুলনায় অনেক ভালো জায়গায় রয়েছে। সোমবার একটা পর্যায়ে ১০০ রুপির দাম গিয়ে দাঁড়িয়েছিল বাংলাদেশের ১১৪ টাকার সামান্য বেশি।
গত তিন যুগের মধ্যে এই পরিস্থিতি এই প্রথমবার তৈরি হল। বাংলাদেশের ১০০ টাকা দিলেই বদলে মিলছে ভারতের ৮৬ রুপি। ৭১-এ বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর টাকা এবং রুপির দর প্রায় সমান ছিল। তারপর দিনদিন পড়তে থাকে বাংলাদেশি টাকার দাম। কিন্তু সেখানে এই মুহূর্তে ভারতীয় রুপির ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে বাংলাদেশি টাকা।
আগস্টের শুরু থেকেই ভারতীয় মুদ্রার অবনতি শুরু হয়েছে। পতন এতটাই বেশি যে, বাংলাদেশি টাকা আর ভারতীয় মুদ্রার পার্থক্য এখন মাত্র ১৪ পয়সা। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close