পাবনাশিরোনাম

দাশুড়িয়ায় দাঁড়িয়ে থাকা বাসকে অপর বাসের ধাক্কা, আহত ৩০ নারী শ্রমিক

বরেন্দ্র বার্তা ডেস্ক: পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়াতে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় অপর একটি বাসের ৩০ জন নারী শ্রমিক আহত হয়েছেন। তারা সবাই ঈশ্বরদী ইপিজেডে কর্মরত বিভিন্ন কোম্পানির শ্রমিক।
আহতদের মধ্যে দুই শ্রমিকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের পাবনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকাল পৌনে ৭টায় ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুড়িয়া ইউনিয়নের ঈশ্বরদী-পাবনা মহাসড়কের পাবনা সুগার মিলের সামনে ডিগ্রিপাড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
আহতরা হলেন-পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার আছমা (২৭), স্বপ্না (২৫), সোহাগী (১৮), শারমিন (২৩), রুমা (২৫), লাইলী (৩০), দিলরুবা (২২), লতিফা (২৪), জবা (৩০), রুপালি (২১), রহিমা (৩৫), নাজমা (২৬), রিমা (১৮), আম্বিয়া (৩০), বিলকিস (৩২) আছমা (৩৩), জাহানারা (১৯), নিলা (২৭), শিল্পী (২৭), ফরিদা (২৮), চম্পা (২৭), মলিনা (২৫), পায়েল (২৪), নাঈমা (১৭), রোজিনা (২২), মুঞ্জুরী (২৮), নিলুফা (৩০), রোজিনা (২৫), সালমা (৩৫) ও জরিনা (৩৮)।
পাকশী হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর কবির জানান, আটঘরিয়া উপজেলার দেবোত্তর বাজার থেকে লিটন-রিপন পরিবহনের একটি বাস ৪৮ জন নারী শ্রমিক নিয়ে প্রতিদিন ঈশ্বরদী ইপিজেড এলাকায় যাতায়াত করে।
শনিবার সকালে ঈশ্বরদী-পাবনা মহাসড়কের কালিকাপুর পাবনা চিনিকলের সামনে বাসটি স্টপেজ দিয়ে যাত্রী তুলছিল। এ সময় পাবনা থেকে ছেড়ে আসা সোহানী পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ওই বাসটিকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে লিটন-রিপন পরিবহনে থাকা ৪৮ নারী শ্রমিকের মধ্যে ৩০ জন আহত হয়।
খবর পেয়ে ঈশ্বরদী ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাদের উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। আহতদের মধ্যে দুই শ্রমিকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের রাজশাহী পাঠানো হয়েছে।
ঈশ্বরদী ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের সাব স্টেশন অফিসার শামসুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে গুরুতর আহত অবস্থায় ২১ জন নারী শ্রমিককে উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়। দাশুড়িয়ায় দাঁড়িয়ে থাকা বাসকে অপর বাসের ধাক্কা, আহত ৩০ নারী শ্রমিক
ঈশ্বরদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত চিকিৎসক ও মেডিক্যাল অফিসার শফিকুল ইসলাম শামীম জানান, দুইজন নারী শ্রমিকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ পাঠানো হয়েছে। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পাবনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী জানান, পাকশী হাইওয়ে পুলিশ সোহানী পরিবহনটি আটক করেছে। এ ব্যাপারে কেউ এখনো অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close