নাটোরশিরোনাম-২

নাটোরের সিংড়ায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে কনস্টেবলের স্ত্রীর আত্মহত্যা

সামউন আলী, সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি: নাটোরের সিংড়ায় ফারজানা (২২) নামের এক গৃহবধূ গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সিংড়া উপজেলার ০১ সুকাশ ইউনিয়নের লয়দাপাড়া গ্রামে। নিহত ফারজানা পুলিশ কনস্টেবল রায়হানের (২৫) স্ত্রী। কনস্টেবল রায়হান জয়পুরহাট সদর থানায় কর্মরত।
দুজনের পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, রায়হান-ফারজানা সম্পর্কে খালাতো ভাইবোন। নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাদম গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে ফারজানা। ১ বছর আগে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয়। রায়হান যৌতুক হিসেবে একটি মটরসাইকেলের জন্য তার স্ত্রীকে বারবার চাপ দিচ্ছিলো এবং মাঝে মাঝে মানবিক নির্যাতন করতো। গত ১০ দিন আগে এক সপ্তাহের ছুটিতে বাড়ি অাসে রায়হান। তার কর্মস্থল জয়পুরহাটে বাসা ভাড়া নিয়ে সেখানে ফারজানাকে নিয়ে যাবে বলে যায়। গতরাতে তারা ফোন কথা বলতে থাকে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে হঠাৎ ফারজানা ফোন বন্ধ করে ফেলে তখন রায়হান তার বাবার মুঠোফোনে কল দিয়ে ফারজানার সাথে কথা বলবে জানায়। তার বাবা ফোন নিয়ে গিয়ে দেখে ঘরের তীরের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলছে ফারজানা। দ্রুত তাকে নন্দীগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, পরে বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিকেলে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।তবে পরিবারের দাবি তাকে নির্যাতন করে ঝুলিয়ে হত্যা করা হয়েছে। সিংড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরন করা হবে। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close