মহানগরশিরোনাম-২

মিনুর নাম ব্যবহার করে ফেসবুকে অপ্রচারে বিভ্রান্ত না হবার পরামর্শ রাজশাহী বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য মিজানুর রহমান মিনুর নামে নামে ভূয়া ফেসবৃক আইডি খুলে কে বা কারা বিভ্রান্তিকর বক্তব্য প্রদান ও ছবি পোস্ট করছে। ফেসবুকে এরকম অপ্রচারে সাধারন জনগন এতে বিভ্রান্ত না হয়ে সচেতন থাকার জন্য সবাইকে আহবান জানিয়েছেন মিনু। মিনুর নাম ব্যবহার করে ফেসবুকে অপ্রচারে বিভ্রান্ত না হবার পরামর্শ রাজশাহী বিএনপির
আজ গনমাধ্যমে রাজশাহী মহানগরে বিএনপি প্রেরিত এক প্রেস বার্তায় এ আহবান জানানো হয়। এতে বলা হয়, সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য জননেতা মিজানুর রহমান মিনু বলেন, তাঁর নামে ভূয়া ফেসবৃক আইডি খুলে কে বা কারা বিভ্রান্তিকর বক্তব্য প্রদান ও ছবি পোস্ট করছে। যা বিভ্রান্তিকর, মিথ্যা ও বানোয়াট। বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক উপমন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলুকে নিয়ে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য লিখে ভুয়া আইডি ও পেজ থেকে পোস্ট দেওয়া হয়েছে। যা সম্পূর্ণ বানোয়াট এবং দলের মধ্যে দন্দ তৈরীর উদ্দেশ্যে দলকে নিয়ে একটি কুচক্রি মহল ষড়যন্ত্র করছে।
তিনি আরো বলেন, ষড়যন্ত্র বা মিথ্যাচার করে কোন লাভ হবেনা। বিএনপি পুর্বেও একত্রিত ছিল। এখনও আছে। কোন ষড়যন্ত্রই কাজে আসবে না। রোববারের রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশ এর প্রমান। আমরা সবাই লাখ জনতা নিয়ে সমাবেশ করেছি। এগুলো দেখে একটি মহলের গাত্রদাহ হয়েছে। আর যারা সমাবেশে আসার পথে বাধা বাধার সৃষ্টি করেছে তারা হতবাক হয়ে গেছে সমাবেশ দেখে। ফেসবুকে আমার নাম, সংগঠনের নাম ব্যবহার করে চলমান ফেসবুকে পেইড (paid post) পোস্টে গুজব অপ্রচার এর তীব্র নিন্দা জানাই। সেইসাথে এই ধরনের কর্মকান্ডের সাথে জড়িতে ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান মিজানুর রহমান মিনু। তাই এর বিরুদ্ধে সংক্রান্ত আইনি পদক্ষেপ গ্রহন প্রক্রিয়াধীন।
উল্লেখ্য, মিজানুর রহমান মিনুর ফেসবুকে একটিমাত্র ফ্যান পেজ রয়েছে যার লিংক – https://www.facebook.com/mizanur.rahman.minu.bnp
যার ফলোয়ার সংখ্যা ৭০ হাজারের অধিক, এটা ব্যতিত মিজানুর রহমান মিনুর অন্য কোন ফেসবুক পেজ, আইডি নেই। অন্য কোন অনলাইন বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমার নামে কোন তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তি,অপ্রচার,মানহানিকর,আইন পরিপন্থী পোস্ট ছড়ালে তার দায়ভার জনাব মিজানুর রহমান মিনুর থাকবে না এবং সাধারন জনগন এতে বিভ্রান্ত না হয়ে সচেতন থাকার জন্য সদয় দৃষ্টি আকর্ষন করা হল। বরেন্দ্র বার্তা/ফকবা/অপস

Close