খেলা

বাংলাদেশ নারী দলের পাকিস্তান সফর অনিশ্চিত

খেলা ডেস্কঃ পাকিস্তানের লাহোরে দুটি টি-২০ এবং তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলার কথা আছে বাংলাদেশ নারী দলের। আগামী ২৩ অক্টোবর ওই সিরিজ মাঠে গড়ানোর কথা। হাতে সময় আছে ১১ দিন। অথচ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সেখানে দল পাঠানোর ব্যাপারে এখনও সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি। পূর্ণ নিরাপত্তার বিষয়টি পরিষ্কার হলেই পাকিস্তানে দল পাঠাবে বলে বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, ‘বিসিবি সভাপতি আগেই জানিয়েছেন, নিউজিল্যান্ডে হামলার পরে নিরাপত্তাই আমাদের মূল বিবেচনার বিষয়। সেখানে নিরাপত্তার ব্যাপারে ছাড়পত্র পাওয়া গেলেই আমরা দল পাঠানোর ব্যাপারটি চিন্তা করবো।’ তবে আকরাম খান ক্রীড়া বিষয়ক সংবাদ মাধ্যম ইএসপিএনকে এও জানিয়েছেন, বাংলাদেশ নারী দলের উন্নতির বিষয়টিও মাথায় রাখতে হবে। তবে সরকারের পক্ষ থেকে সবুজ সংকেত না পেলে বাংলাদেশ নারী দল পাকিস্তান সফরে যাবে না।

বাংলাদেশ নারী দলের পাকিস্তান সফরের ওপর নির্ভর করছে পুরুষ দলের পাকিস্তান সফরের বিষয়টি। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা আছে সাকিব-তামিমদের। সেখানে টেস্ট ও টি-২০ সিরিজ খেলার কথা টাইগারদের। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ চালু হওয়ায় ওই ম্যাচ বাংলাদেশের জন্য ওই সিরিজ গুরুত্বপূর্ণ। নারী দলের পাকিস্তান সফর না হলে রাসেল ডমিঙ্গো এবং তার দলের পাকিস্তান সফর আরও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে যাবে।

ওদিকে সদ্য পাকিস্তান সফর করে ফেরা শ্রীলংকা জাতীয় দলও দেশটির নিরাপত্তা নিয়ে ভালো মন্তব্য করেনি। নিরাপত্তা নিয়ে তাদের বিশেষ অভিযোগ নেই। তবে কথার ধরণে প্রকাশ পায়, খেলার মতো পরিবেশ পাকিস্তানে এখনও আসেনি। দলের সঙ্গে পাকিস্তান সফরে যাওয়া শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান শাম্মি ডি সিলভা বলেন, ‘পাকিস্তানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা খেলোয়াড়দের দম বন্ধ অবস্থায় ফেলে দিয়েছিল। তিন থেকে চার দিন টানা হোটেলে থেকে সবাই বিরক্ত হয়ে গিয়েছিল।’ তার কথায় স্পষ্ট বন্দুকের নলের সামনে দাঁড়িয়ে আর যাই হোক খেলা হয় না।
বরেন্দ্র বার্তা/ নাসি

Close