বাগমারাশিরোনাম-২

বাগমারায় আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে সরকারী রাস্তার গাছ কাটার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি:  বাগমারা উপজেলার বাসুপাড়া ইউনিয়নের সগুনা গ্রামের ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে রাস্তায় সরকারী গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। ওই ঘটনায় সগুনা গ্রামের আব্দুল মান্নান নামের এক ব্যক্তি বাদী হয়ে ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সগুনা থেকে দ্বীপনগরের মোড় পর্যন্ত কাঁচা রাস্তায় সরকারী ভাবে বিভিন্ন জাতের মূল্যবান কাঠের গাছ লাগানো ছিল। গাছ গুলো বড় হওয়ার সুবাদে সগুনা গ্রামের ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম গাছ গুলো একই এলাকার গাছ ব্যাবসায়ী ইউসুফ আলীর নিকট বিক্রি করেছেন। গাছ গুলো কাটা শুরু করলে এলাকার লোকজন বাঁধা দেয়ার চেষ্টা করে। প্রভাব খাটিয়ে এলাকার লোকজনকে সেখান থেকে তাড়িয়ে দেন এবং দরপত্রের মাধ্যমে গাছ গুলো কিনে তিনি অন্যত্রে বিক্রি করেছেন বলে দাবি করেন। অভিযোগকারী আব্দুল মান্নান বলেন, ৫০ লাখ টাকার বিভিন্ন প্রজাতীর গাছ গুলো তিনি পানির দামে বিক্রি করেছেন। গাছ গুলো কাটার কারনে এলাকাবাসীর মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। সরকারী রাস্তার গাছ কাটার অভিযোগ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের অনিয়ম ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ রয়েছে। এলাকার লোকজন আ’লীগ নেতা আব্দুস সালামের
বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে অভিযুক্ত আব্দুস সালাম গাছ কাটার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, মাছ চাষকে কেন্দ্র করে আব্দুল মান্নানের সাথে তার বিরোধ চলে আসছে। ওই বিরোধকে কেন্দ্র করে তিনি তার বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর মিথ্যা লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন। বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে জানিয়েছেন তিনি ।
বরেন্দ্র বার্তা/ সরা/ নাসি

Close