খেলানাগরিক মতামতশিরোনাম

পাশে আছি সাকিব

অর্ণব পাল সন্তু: অবশেষে জুয়ারীদের প্রস্তাব গোপন করার অভিযোগে নিষিদ্ধ হলেন সাকিব।
সাকিব ভক্তদের বদ্ধমূল বিশ্বাস ছিল এটা ভুল অভিযোগ। তাদের ধারণা-সাকিব যে খেলোয়াড়দের দাবি-দাওয়া নিয়ে আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন তার ফল ভোগ করছেন, ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে। অভিযোগ মানতে না পারাটা সাকিব ভক্তদের মনস্তাত্ত্বিক বিষয়। কারণ, তারা বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডারকে হৃদয় দিয়ে ভালোবাসতেন, অন্ধভাবে বিশ্বাসও করতেন।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিক্রিয়া শুরু হয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের চৌদ্দগোষ্ঠি উদ্ধারের মধ্যে দিয়ে। কারণ, আইসিসির এই শাস্তির প্রসঙ্গটা এমন এক সময় সামনে এসেছে যার কয়েকদিন আগে থেকেই বাংলাদেশের ক্রিকেটে টালমাটাল অবস্থা।
যার সব কিছুতেই অগ্রণী ভূমিকা ছিল সাকিবের। ক্রিকেটারদের বিনা নোটিশে ধর্মঘট, বিসিবির অনুমতি ছাড়া একটি ফোন কোম্পানির সাথে সাকিবের চুক্তি- এসব নিয়েই বিসিবির সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয়ে দেশসেরা এ ক্রিকেটারের। যে কারণে, সাকিবের ভক্তদের ধারণা কৌশলে সাকিববে ফাঁসানো হয়েছে। আর সূতো নাড়ছেন বিসিবি সভাপতি।
সাকিবকে প্রশংসায় ভাসিয়ে আর আইসিসি-বিসিবির মুন্ডুপাত করেই ক্ষান্ত হননি ভক্তরা ভারত সফরের আগে কেন টেনে আনা হলো দুই বছর আগের ঘটনা সে প্রশ্নও তুলেছেন অনেকে। সাকিবকে এবং বাংলাদেশের ক্রিকেটকে দাবায়ে রাখতেই একটি চক্র কাজ করছেন- এমন অভিযোগ করা ক্রিকেটপ্রেমীরও অভাব ছিল না সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।
সাকিব এত কিছু বোঝেন আর আর এটা বুঝলেন না- জুয়াড়িদের প্রস্তাব গোপন রাখলে বিপদে পড়তে হবে। তাও একবার নয়, তিনবার। কেউ বিস্ময় প্রকাশ করেছেন, কেউ আবার হেসেছেন। কেউ বলেছেন ভালোই হয়েছে-বেটা বড্ড বেড়েছিল।পাশে আছি সাকিব
একদিন পর ঐতিহাসিক সফরে ভারত যাবে ক্রিকেট দল। কারা থাকছেন দলে, কারা থাকছেন না- এ নিয়ে কোনো আলোচনাই ছিল না সারাদিন। আলোচনা ওই একটাই- সাকিব আল হাসান। সকালে সচিবালয়ে এ নিয়ে দীর্ঘ সময় কথা বলতে হয়েছে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপিকে। ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে মিডিয়াকে সাকিবের পক্ষে থাকার আহ্বান জানিয়েছে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ শাহরিয়ার আলম।
দুই বছরের জন্য সাকিব আল হাসানকে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। তবে দায় স্বীকার করে নেয়ায় এবং তদন্তে সহায়তায় করায় তার সাজা এক বছর কমিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা। সাকিবের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে ভক্ত থেকে শুরু করে ক্রিকেট বোর্ড এবং সতীর্থরা দুঃখ প্রকাশ করছেন।
সাকিবের নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আবেগ প্রকাশ করেছেন তার দীর্ঘ দিনের সতীর্থ মাশরাফি বিন মুর্তজা। মঙ্গলবার রাত সাড়ে এগারোটার দিকে ফেসবুক পোস্টে মাশরাফি লিখেন, দীর্ঘ ১৩ বছরের সহযোদ্ধার আজকের ঘটনায় নিশ্চিতভাবেই কিছু বিনিদ্র রাত কাটবে আমার। তবে কিছুদিন পর এটা ভেবেও শান্তিতে ঘুমাতে পারব যে, তার নেতৃত্বেই ২০২৩ সালে আমরা বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলব। কারণ নামটি তো সাকিব আল হাসান…!!!পাশে আছি সাকিব
অন্যদিকে সুযোগ পেয়ে সাকিবকে কটাক্ষ করেছেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমানে ক্রিকেটের জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজা।পাশে আছি সাকিব
পাকিস্তানের সাবেক এই ক্রিকেটার সাকিবের নিষেধাজ্ঞার খবরটি শোনার পরই টুইট করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে। যেখানে তিনি এই ঘটনাকে দুঃখজনক উল্লেখ করলেও ক্রিকেটার সাকিবকে ঠিকই কটাক্ষ করেছেন।
রমিজ রাজা তার টুইটে লিখেছেন, ‘সাকিব আল হাসানের এই নিষেধাজ্ঞা ক্রীড়াপ্রেমী এবং খেলোয়াড় সকলের জন্য একটা শিক্ষা : যদি আপনি খেলাটাকে অসম্মান করেন এবং আরোপিত নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে খেলাটার চেয়ে নিজেকে বড় করার চেষ্টা করেন, তবে চমৎকার একটি পতনের জন্য তৈরি থাকুন। দুঃখজনক।’
‘চমৎকার পতন’ কথাটি লিখে রমিজ রাজা যেন তার মনের খুশিকেই তুলে ধরেছেন। ব্যাপারটা এমন, অনেক দিন ধরে এমন সুযোগই তো খুঁজছিলাম। এখন ভালো হলো তো!
পাশে আছি সাকিবভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান এবং বর্তমানে ভারতীয় দলের ক্রিকেটার তৈরির কারিগর রাহুল দ্রাবিড় আর সবার মতো সুযোগ পেয়ে সাকিবের সমালোচনায় মাতছেন না। বরং তিনি মনে করছেন, যে ঘটনা ঘটেছে, তাতে এত কঠোর শাস্তি কিছুতেই পান না সাকিব। শুধু তাই নয়, আইসিসি যেন সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে, সেই আহ্বানও জানিয়েছেন ক্রিকেটের ‘দ্য ওয়াল’খ্যাত দ্রাবিড়।
সাকিবের নিষেধাজ্ঞার খবর শুনে রাহুল দ্রাবিড় তার টুইটার অ্যাকাউন্টে লিখেছেন, ‘অবিশ্বাস্য! সাকিবের শাস্তিটা বেশি কঠোর হয়ে গেল না? সে কি ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িত ছিল? আমার মনে হয়, তার অপরাধ হলো আইসিসি এবং এন্টি করাপশন ইউনিটকে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব সম্পর্কে জানায়নি। এজন্য দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা একটু বেশিই কঠিন হয়ে গেছে। আশা করি আইসিসি তাদের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করবে।’পাশে আছি সাকিব
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল সাকিব আল হাসানকে যে শাস্তি দিয়েছে তা মেনে নিয়ে তিনি বলেছেন, সবার সমর্থন থাকলে এই সময়ের মধ্যে আগের থেকে শক্তিশালী হয়ে ফিরবেন। আইসিসির রায় ঘোষণার পর মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে সংবাদ সম্মেলনে এসে লিখিত বক্তব্যে এ কথা বলেন সাকিব।
তিনি বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে আইসিসির যে অবস্থান এবং সেজন্য আমার বিরুদ্ধে যে শাস্তি তা আমি মাথা পেতে নিচ্ছি। সবার সমর্থন থাকলে নিষেধাজ্ঞা শেষে আগের থেকে শক্তিশালী হয়ে ফিরব।
দেশের আপামর ক্রিকেট পাগল সাকিব ভক্তরা মানতে পারছেন না এ নিষিদ্ধতা। এরই মধ্যেসোমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাকিবকে নিয়ে ঝড় চলছে। রাস্তায় নেমেছেন ভক্তরা।
আইসিসি কর্তৃক নিষিদ্ধের প্রতিবাদে বুধবার সকাল ১০ টায় বিক্ষোভ ও অবস্থান কর্মসূচী পালন করবে রাবিয়ানরা।
একই সঙ্গে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান নাজমুল হাসান পাপনকে বোর্ড থেকে অপসারণ এবং বাংলাদেশের ক্রিকেট ধ্বংসের দেশি-বিদেশী চক্রান্তের প্রতিবাদ জানানো হবে।
সাকিবের নিষিদ্ধের খবরে গোটা ক্রিকেট বিশ্বে আলোড়ন চলছে, আইসিসি কর্তৃক বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে নিষিদ্ধের খবর দেশীয় গণমাধ্যমের পাশাপাশি বিশ্ব মিডিয়ায় গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরা হয়েছে।
জুয়াড়িদের কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়ে প্রত্যাখ্যান করলেও বিষয়টি গোপন করায় ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। তবে নিজের ভুল স্বীকার করায় তার শাস্তি এক বছর কমিয়ে দেওয়া হয়েছে।পাশে আছি সাকিব
মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানায় আইসিসি। এরপর দেশীয় গণমাধ্যমের পাশাপাশি বিদেশি গণমাধ্যমেও খবরটি প্রকাশ করা হয়।
বৃটিশ গণমাধ্যম বিবিসি বলছে, ‘Shakib al Hasan: Bangladesh captain banned for corruption’ অর্থাৎ দুর্নীতির কারণে নিষিদ্ধ বাংলাদেশি ক্যাপ্টেন সাকিব।
দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে ‘Shakib Al Hasan barred from practice, faces possible ban: Report’ অর্থাৎ, সাকিব আল হাসান সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ
ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, ‘Shakib Al Hasan Faces ICC Ban For Not Reporting Corrupt Approach: Report’ অর্থাৎ দুর্নীতির প্রস্তাব আইসিসিকে না জানানোয় নিষিদ্ধ হচ্ছেন সাকিব।
ওয়াশিংটন পোস্ট শিরোনাম করেছে, ‘ICC bans Bangladesh skipper Shakib in anti-corruption case’ অর্থাৎ, দুর্নীতির মামলায় বাংলাদেশি স্কিপার সাকিবকে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। পাশে আছি সাকিব
শেষ খবর, এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটি থেকে সাকিবের পদত্যাগ করেছেন সাকিব।
তবে যাই হোক, বোকার মত খবর গোপন রাখার জন্য ক্রিকেট বিশ্ব আগামী এক বছর সাকিবকে মাঠে দেখা যাবে না। অগুনিত ভক্তদের আবেগ, ভালবাসা নিয়ে সবাই সাকিবের পাশে থাকবে। পাশে আছি সাকিব।

cv‡k AvwQ mvwKe

Close