নওগাঁশিরোনাম-২

মহাদেবপুরে এক বর্গাচাষীর ৫০শতক জমির কাঁচা চিনি আতব ধান কেটে ফেলার হুমকী

মো.মাহবুবুউল আলম,মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর মহাদেবপুরে এক বর্গাচাষীর ৫০শতক জমির কাঁচা চিনি আতব ধান কেটে ফেলার হুমকী দিয়েছে এক প্রতিপক্ষ দল। উপজেলার খাজুর ইউনিয়নের রনাইল গ্রামের মৃত ফয়েজ উদ্দীন মাষ্টারের ছেলে বর্গাচাষী মোস্তাক আহম্মেদ বকুল ৬ বছর থেকে একই গ্রামের মৃত ছফের উদ্দীনের ছেলে আব্দুল জব্বার মন্ডলের ৫০শতক জমি চাষাবাদ করে আসছিল। একই গ্রামের মৃত তালেব উদ্দীনের ছেলে মফিজ উদ্দীন ওই জমির কাঁচা ধান কেঁটে ফেলার হুমকী দেয়ায় বর্গাচাষী বকুল মালিক পক্ষের সরনাপূর্ণ হয়। জমির মালিক পক্ষ আব্দুল জব্বার জানান, আমার মায়ের খতিয়ান ও রেকর্ড ভুক্ত ৫০শতক জমিতে প্রায় ২৫টির মত আম গাছ রয়েছে ,সেইসব আম গাছের বষস ২৫ বছরের মত হবে। সেই আম গাছ বাগানসহ বকুলকে বর্গা দেয়া হয়েছে। পূর্ব জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মফিজ উদ্দীন আমার লাগানো আম গাছগুলো দখলের নেয়ার পায়তারা করলে থানায় অভিযোগ দেয়া হয়। থানাপুলিশ উভয় পক্ষকে ধার্জ তারিখে উপস্থিত হতে বললে মফিজ পক্ষ থানায় হাজির না হয়ে বিভিন্ন ভাবে জমি দখলের হুমকী হামকী দিয়ে আসচ্ছে বলেও আব্দুল জব্বার জানান। এব্যারে মফিজ উদ্দীনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি কাঁচা ধান কেঁটে ফেলার কথা অশ্বিকার করেন। তবে তিনি ওইসব আমগাছ আব্দুল জব্বার লাগিয়েছেন সেই কথা শিকার করেন। এব্যাপারে বর্গাচাষী মোস্তাক আহম্মেদ বকুল তার লাগানো চিনি আতব ধান সূষ্ঠ ভাবে ঘড়ে তোলার জন্য প্রশাসনের সুদৃষ্ঠি কামনা করেন। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close