নওগাঁশিরোনাম-২

ধামইরহাটে রাস্তা সংস্কারে নিম্নমানের ইট ব্যবহার, কাজ বন্ধ করলেন উপজেলা প্রকৌশলী

তাওসিফ ইসলাম, ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর ধামইরহাটে স্থানীয় সরকার প্রকল্পের অধীনে গ্রামীন রাস্তার সংস্কার কাজে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে। গ্রামবাসীদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাৎক্ষনিক ভাবে উপজেলা প্রকৌশলী আলী হোসেন নিম্নমানের ওইসব ইট অপসারণের নির্দেশ প্রদান এবং নতুন ইট ছাড়া কাজ করতে নিষেধ করেছেন।
জানা গেছে, নওগাঁর নির্বাহী প্রকৌশলীর দপ্তর হতে চলতি বছরের গত ২৭ মে ১৪১৬ নম্বর স্মারকমুলে কার্যাদেশ প্রাপ্ত হন রাজশাহী বোয়ালিয়ার ঠিকাদার ‘লিটন এন্টার প্রাইজ’। ৫০ লক্ষাধিক টাকা বরাদ্দে রাস্তাটির সংস্কার কাজের কার্যাদেশ প্রাপ্তি সাপেক্ষে ঠিকাদারী সংস্থার নিম্নমানের ৩ নম্বর ইট দিয়ে মঙ্গলকোঠা-তালঝাড়ি’র ২ কিলোমিটার সড়কে কাজ শুরু করলে মঙ্গলকোঠা গ্রামের আ. রহিম, মনোয়ারা বেগম এবং তালঝাড়ি গ্রামের নিতাইচন্দ্রশীল, বিশ্বনাথ ও সুবাস চন্দ্র শীল এবং গনেশের স্ত্রী শর্মিলাসহ একাধিক গ্রামবাসী কাজে বাধা প্রদান করেন। বিষয়টি উপজেলা প্রকৌশলী আলী হোসেনের দৃষ্টিগোচর হলে তিনি, তাৎক্ষনিক কাজ বন্ধ ও নিম্নমানের ইটগুলো অপসারণের নির্দেশ প্রদান করেন।
উপজেলা প্রকৌশলী আলী হোসেন বলেন, রাস্তাটির সংস্কার কাজে বেডে নিম্নমানের খোয়া বিছানো, সড়কে স্পেসিফিটেশন বহির্ভূত ইট-খোয়া মজুদ ও গ্যাপ দিয়ে এজিংসহ বিভিন্ন অনিয়মের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট উর্ধতন মহলে লিখিতভাবে অবগত করেছি এবং নিম্নমানের মালামাল সরিয়ে ভাল ইট দিয়ে রাস্তা নির্মানের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।
রাজশাহী’র ঠিকাদারী সংস্থার ‘লিটন এন্টার প্রাইজ’ এর ম্যানেজার মো. মিঠু বলেন, “ নিম্নমানের কিছু ইট মিস্ত্রিগণ বিছিয়েছিল, যা আমরা উপজেলা প্রকৌশলী অভিযোগ সাপেক্ষে অপসারণ করেছি। তবে তিনি ঠিকাদার সংস্থার প্রধান লিটন এর মোবাইল নম্বর দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন।
গ্রামবাসী মনোয়ারা, শর্মিলা ও আ. রহিম বলেন, সরকার যেহেতু অনিয়ম বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে তাই আমরা এই প্রতিবাদে সকলেই একাত্বতা ঘোষনা করেছি। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close