খেলা

হতাশার মধ্য দিয়ে শেষ হলো ইন্দোর টেস্টের প্রথম দিন

খেলা ডেস্কঃ ভারতের বিপক্ষে ইন্দোরে প্রথম টেস্টের প্রথম দিন শেষে বাংলাদেশের প্রাপ্তি কেবল একটি ছবি। ভারতের প্রথম ইনিংসের শুরুতে ওপেনার রোহিত শর্মাকে ৬ রানে সাজঘরে ফেরানো এবং আবু জায়েদের লাফিয়ে ওঠা। বাকি সময়টায় বোলিংয়ে কিংবা ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ দলের ওপর ছড়ি ঘুরিয়েছে ভারত। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশকে ১৫০ রানে অলআউট করে দেয় ভারত। বাকি সময়টা ১ উইকেট হারিয়ে ৮৬ রান তুলে শেষ করে স্বাগতিকরা। প্রথম দিন শেষে তারা ৯ উইকেট হাতে রেখে বাংলাদেশের চেয়ে মাত্র ৬৪ রানে পিছিয়ে।

সকালের উইকেটে ভারতীয় পেসার ইশান্ত শর্মা এবং উমেশ যাদবের নতুন বলের ছোবল ভয় ধরিয়ে দেয় বাংলাদেশকে। ভয়কে সত্য করে ৩১ রানে ৩ উইকেট তুলে নেয় ভারত। টাইগার ভক্তদের মনে তখন আক্ষেপ। টস জেতা মুমিনুল হক বিরাট কোহলিদের ব্যাটিংয়ে পাঠালেই পারতেন। ইন্দোরের হলকার স্টেডিয়ামে চার বছর ধরে লাল মাটির উইকেট বানাচ্ছেন কিইরেটর। শুরুতে পেস ছোবল মারে। সেটা সামলাতে পারলেই ব্যাটে রান পাওয়া যায়। মধ্যে মুমিনুল হক এবং মুশফিকুর রহিম ৬৮ রানের জুটি গড়ে সেটাই মনে করিয়ে দেন। কিন্তু পরে মোহাম্মদ শামির ঝলকে ইন্দোর টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৫০ রানে অলআউট হয়েছে বাংলাদেশ।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হয়েছে সাড়ে তিন মাস হলো। ভারতের বিপক্ষে মুমিনুলের নেতৃত্বে টেস্টের বিশ্বকাপ খ্যাত এই টুর্নামেন্ট শুরু করেছে বাংলাদেশ। ইন্দোরে বৃহস্পতিবার সিরিজের প্রথম টেস্টে টস জিতে ব্যাটিং নেয় বাংলাদেশ। তবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের শুরুটা ভালো হয়নি মুশফিক-মাহমুদুল্লাহদের। দুই সেশনে ৫৮.৩ ওভার ব্যাট করতে পারে রাসেল ডমিঙ্গোর শিষ্যরা। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের শুরুটা তাই হতাশা হয়ে থাকল বাংলাদেশের জন্য।

ব্যাটে নামা বাংলাদেশ শুরুতে উমেশ যাদবের বলে ক্যাচ দিয়ে ৬ রান করে ফেরেন ইমরুল কায়েস। এরপরই ইশান্ত শর্মার শিকারে পরিণত হয়ে সাদমান ইসলাম সাজঘরে ফেরেন ৬ রান করে। পরে মোহাম্মদ শামির ছোবলে ১৩ রানে থামে মোহাম্মদ মিঠুনের যাত্রা। মুশফিকুর রহিম ও অধিনায়ক মুমিনুলে আশা দেখছিল বাংলাদেশ। কিন্তু মুমিনুলকে ৩৭ রানে বোল্ড করে দেন রবিশচন্দন অশ্বিন। মাহমুদুল্লাহকেও তুলে নেন অশ্বিন। ফেরান বোল্ড করে। ঘরের মাঠে তিনি তুলে নেন আড়াইশ’ উইকেট। মাহমুদুল্লাহ করেন ১০ রান।

এরপর শামি ছো মেরে বাংলাদেশ দলকে ভরসা দেওয়া মুশফিককে তুলে নেন। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেন উইকেটকিপিং ছেড়ে ব্যাটিংয়ে মন দেওয়া মুশফিক। পরের বলেই ফিরে যান স্পিনার মেহেদি মিরাজ। শামি তার ওভারের শেষ দুই বলে তুলে নেন মুশফিক ও মিরাজকে। চা বিরতির পরের ওভারে এসে প্রথম বলেই লিটন দাসকে তুলে নেন ইশান্ত শর্মা। দলীয় হ্যাটট্রিক হয়ে যায় ভারতের। লিটন দাস খেলেন ২১ রানের ইনিংস। তিনি যখন ফিরে গেছেন দলের রান তখন ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪০ রান। ওই ধাক্কা টেলেন্ডাররা সামাল দিতে পারেনি। দেড়শ’ হতেই অলআউট হয়ে যায় দল।

জবাব দিতে নামা ভারত মায়াঙ্ক আগারওয়ালের ৩৭ এবং চেতেশ্বর পূজারার ৪৩ রানে ভর করে দিন শেষ করেছে। প্রথন দিন শেষে তারা বড় লিড নেওয়ার বার্তা দিয়েছে। তবে ইন্দোর টেস্টে প্রথমদিন কোন ফিফটি দেখেনি। মায়াঙ্ক আগারওয়াল এবং চেতেশ্বর পূজারা নিশ্চয় দ্বিতীয় দিন সেটা অপূর্ণ রাখবেন না। এর আগে ভারতের তিন পেসার মিলে নিয়েছেন সাত উইকেট। মোহাম্মদ শামি দখল করেছেন তিন উইকেট। দুটি করে উইকেট নিয়েছেন উমেশ যাদব এবং ইশান্ত শর্মা। এছাড়া কুলদীপ যাদবকে হটিয়ে টেস্টে আবার ভারতের স্পিন আক্রমণে জায়গা করে নেওয়া অশ্বিন নিয়েছেন দুই উইকেট। বাংলাদেশের রানের জবাবে ভারত এরই মধ্যে তাদের প্রথম ইনিংস শুরু করেছে।
বরেন্দ্র বার্তা/ নাসি

Close