জাতীয়শিরোনাম

বিএসএফের পুশইনে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নাই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বরেন্দ্র বার্তা ডেস্ক: ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ রাজশাহীর সীমান্ত দিয়ে শত শত লোককে বাংলাদেশে পুশইন (জোর করে প্রবেশ করানো) করার চেষ্টা করছে কিনা, সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘বিএসএফের পুশইনে বাংলাদেশিদের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নাই। বাংলাদেশি নাগরিক না হলে কেউ সীমান্ত দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সীমান্তে প্রস্তুত রয়েছে। অবৈধভাবে পুশইনের যেকোনও চেষ্টা বিজিবি প্রতিরোধ করতে সক্ষম। তারা সেই প্রস্তুতি নিয়েই সীমান্ত পাহারা দিচ্ছে।’
আজ মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে নিজ দফতরে তিনি এসব কথা বলেন। সাংবাদিকরা মন্ত্রীর কাছে জানতে চান, রাজশাহী সীমান্ত দিয়ে বিএসএফ ২০০ এর বেশি কিছু লোককে পুশইন করতে চেয়েছিল কিনা। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি খোঁজ নিয়ে দেখেছি। হাজার হাজার মানুষের কথা বলা হলেও তারা সংখ্যায় খুব কম। শখানেক হতে পারে। তবে তারা বাংলাদেশি কিনা, পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে কিনা, ভিসা শেষ হয়ে গেছে কিনা এরকম জটিলতায় পড়ে লোকজন বাংলাদেশে ফেরত আসতে চাচ্ছে কিনা তা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করে বলতে চাই, অন্য কোনও দেশের নাগরিক হলে তারা বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না, প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।’
উল্লেখ্য, রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার সাহেবনগর সংলগ্ন বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের নোম্যান্সল্যান্ডে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) চৌকি স্থাপন করেছে। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে চিঠি পাঠানোর চেষ্টা হলেও বিএসএফ তা গ্রহণ করেনি বলে জানিয়েছে বিজিবি। তবে বিজিবির পক্ষ থেকে আজ মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) সরেজমিনে পরিদর্শনে আসার আহ্বান জানানো হয়েছে বিএসএফকে।
এদিকে ভারত থেকে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে এবং মাদক, চোরাচালান ও মানবপাচার রোধ করতে বিজিবির সঙ্গে রাত জেগে সীমান্ত পাহারা দিচ্ছেন রাজশাহীর পবা উপজেলার চরখানপুর গ্রামবাসী। সীমান্তে নজরদারি জোরদার করতে গ্রামের বাসিন্দারা টর্চলাইট ও লাঠি হাতে নিয়ে সন্ধ্যা ৬টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত পালা করে পাহারায় থাকছেন। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close