মহানগরশিরোনাম-২

আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী দিবস উপলক্ষে ‘ডিবিওয়াইও’র র‌্যালী’

মহানগর প্রতিবেদক: ৫ ডিসেম্বর ২০১৯ (বৃহস্পতিবার) আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী দিবস উপলক্ষে ‘ড্রীম বাংলাদেশ ইয়ুথ অর্গানাইজেশন’ ডিবিওয়াইও’র উদ্যোগে নগরীর আলুপট্টি মোড়ে র‌্যালীটির আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়।
সংগঠনের আহ্বায়ক মোঃ শাহিনুর ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ডিবিওয়াইও’র প্রধান উপদেষ্টা ও রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বোয়ালিয়া মডেল থানার পুলিশ ইন্সপেক্টর মোঃ মাহাবুব আলম এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ডিবিওয়াইও’র উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ও ‘বাংলাদেশ সিটিজেন জার্নালিস্ট ফোরাম’ বিসিজেএফ’র সভাপতি মোঃ সাইফুল ইসলাম।
উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংগঠনটির প্রধান উপদেষ্টা রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান বক্তব্যের শুরুতেই আহব্বায়ক ও আহ্বায়ক কমিটির সকল সদস্যদের এবং উপস্থিত সকল স্নেহভাজন শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে তিনি তার বক্তব্যে বলেন বলাবাহুল্য আমাদের এই স্বপ্নের বাংলাদেশের গর্বের এই গৌরব প্রজন্ম। আমাদের সময় যখন আমরা লেখাপড়া করেছি তখন কিন্তু কিছুই জানতাম না আজকের তরুণরা তারা পারিবারিক কাজ ফেলে সামাজিক ও সচেতনতা কার্যক্রম অনেক বেশি তৎপর, যেটি আমাদের করার সময় ছিল না।
ছোট একটি গোষ্ঠী যখন বিরল হয়ে যাচ্ছে, নিজেদের পথ থেকে বিচ্যুত হচ্ছে, সুন্দরের পথ থেকে বিচ্যুত হচ্ছে, তখন এ সমস্ত সংগঠনের পাশাপাশি জন্ম হচ্ছে এমন সব সৃজনশীল সংগঠনের। ফলে আমরা যেখান থেকে নতুন ভাবে স্বপ্ন দেখতে শুরু করি।
তাই তিনি মনে করেন ‘ড্রীম বাংলাদেশ ইয়ুথ অর্গানাইজেশন’ যে প্রতিশ্রুতি নিয়ে, যে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়ে, যে স্বপ্ন নিয়ে, যে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যকে সামনে নিয়ে এ সংগঠনটি গড়ে উঠেছে সে লক্ষ্য-উদ্দেশ্য বাস্তবায়িত হবে তাদের কর্মযজ্ঞের দ্বারা। আমরা চাই যে ‘কিছু পাবার চাইতে দেবার আনন্দটাই বেশি হয়, অর্থাৎ দেবার আনন্দটাই যেন আমাদের বেশি হয় এই উদাত্ত্ব আহ্বান জানান।
এসময় তিনি বোয়ালিয়া মডেল থানার পুলিশ ইন্সপেক্টর মাহবুব আলমকে উদ্দেশ্য করে বলেন, তারা সবসময় বিভিন্ন সংগঠনের খবরা-খবর রাখেন তাই তিনি তার কাছ থেকে ‘ড্রীম বাংলাদেশ ইয়ুথ অর্গানাইজেশন’ সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন এবং ‘আন্তর্জাতিক ভলান্টিয়ার ডে’ শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বোয়ালিয়া মডেল থানার পুলিশ ইন্সপেক্টর মোঃ মাহাবুব আলম ডিবিওয়াইও’র এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন ‘দিবেন কম পাবেন বেশি’ এই কথাটির পরিবর্তে তিনি তার নিজস্ব অভিমত ব্যক্ত করেন ‘দিব বেশি পাবো কম’ এই আশা নিয়ে তরুণদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে তরুণদের উদ্দেশ্যে নানা দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।
ডিবিওয়াইও’র উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ও ‘বাংলাদেশ সিটিজেন জার্নালিস্ট ফোরাম’ বিসিজেএফ’র সভাপতি মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, আমি বরাবরের মতই বলতে চাই, আমরাই শ্রেষ্ঠ মানুষ, যারা সংগঠন করছি। পৃথিবীতে নোবেল প্রফেশনটা হচ্ছে স্বেচ্ছাশ্রম দেওয়া অন্যদের জন্য।
আমাদের এটা যেন স্বেচ্ছাশ্রম ও দেশাত্নককে কেন্দ্র করে সত্যিকারে নিজেদের মধ্যে লালন করতে পারি, তবেই আমরা অনন্য মানুষ হতে পারবো এবং আমরাই তার পাওনিয়ার আগামী দিনে আমরা যেন নিজেদের সম্মান করতে পারি, মানুষের মতো মানুষ হিসেবে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে পারি
এ সময় ডিবিওয়াইও’র সদস্য ফয়সাল আহমেদ বাপ্পী বলেন,প্রকৃত অর্থে মানবিক গুনাবলী সম্পন্ন প্রতিটি মানুষই স্বেচ্ছাসেবক।
সদস্য শাহাদাত হোসেন বলেন, ব্যক্তি, সমাজ বা রাষ্ট্রের কল্যাণে নিজের শ্রম, অর্থ, সময় ব্যয় করার মনমানসিকতা পোষণ করা উচিত প্রতিটি সুস্থ স্বাভাবিক মানুষেরই।
একটি নতুন বিশ্ব গড়ার লক্ষ্যে এ দিবসে স্বেচ্ছাসেবীরা তাদের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন।
নগরীর আলুপট্টি মোড়ে র‌্যালী টি আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে সাহেব বাজার ভুবনমোহন পার্ক শহিদ মিনারে এসে শেষ হয়।
উল্লেখ্য, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘ড্রীম বাংলাদেশ ইয়ুথ অর্গানাইজেশন’ ডিবিওয়াইও। বরেন্দ্র বার্তা/মিআআ/অপস

Close