মহানগরশিরোনাম-২

শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস ও দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি ছাত্রমৈত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাষ্ট্রের শিক্ষা ব্যবস্থাকে গণমুখী ও গণতান্ত্রিক করার দাবি জানিয়ে শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস ও দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী। শনিবার (৭ ডিসেম্বর) বিকেলে ছাত্রমৈত্রীর ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক ছাত্র সমাবেশে এসব কথা বলেন ছাত্র সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।
এ সময় শিক্ষাঙ্গনে ঘুষ-দুর্নীতি ও সা¤প্রদায়িক শক্তিকে পরাস্ত করে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির ভিত্তিকে আরও পাকাপোক্ত করারও আহŸান জানান সংগঠটির রাজশাহী জেলা-মহানগরের সাবেক ও বর্তমান নেতারা।
জাতীয় সংগীত ও পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে শুরু হওয়া ছাত্রসমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- সাবেক ছাত্রনেতা ও রাজশাহী মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু। সমাবেশ উদ্বোধন করেন মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু।
বর্তমানে দেশের কিছু ছাত্র-শিক্ষকদের নৈতিকতা নিয়ে কঠোর সমালোচনা করেন বক্তারা। তারা বলেন, পত্রপত্রিকায় দেখা যায় রাষ্ট্রের কিছু শিক্ষকরা আজ ব্যাপকভাবে দুর্নীতিগ্রস্ত। তারা তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়নে ছাত্রদের ঘারে চেপে ফায়দা লুটছে। ছাত্র-শিক্ষকের সম্পর্কের মানসিকতা জলাঞ্জলি দিয়ে তারা শিক্ষাঙ্গনকে ধ্বংসের পথে ধাবিত করছে। ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠনের অনেকে সন্ত্রাসের সাথে যুক্ত। টর্চার সেলের নামে সাধারণ শিক্ষার্থীদের নির্যাতন, এমনকি হত্যার সাথেও তাদের প্রত্যক্ষ সম্পৃক্ততা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সাধারণ শিক্ষার্থীদের ঐক্যবদ্ধ করে ছাত্রমৈত্রীকে রাজপথে কঠোরভাবে দাঁড়িয়ে এসবের বিরুদ্ধে মোকাবেলা করার দৃঢ় প্রত্যয় করেন তারা।
বক্তারা আরও বলেন, ছাত্রমৈত্রীর ৩৯ বছরের ইতিহাস এক গৌরবময় ইতিহাস। দেশের প্রায় গুরুত্বপূর্ণ ন্যয়-সঙ্গত আন্দোলনে ছাত্রসমাজকে ঐক্যবদ্ধ ও সর্বপরি সা¤প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে আপোষহীনভাবে রাজপথে লড়াই করেছে ছাত্রমৈত্রী। এর ফলেই সা¤প্রদায়িক শক্তি আজ কোণঠাসা। রাজশাহীসহ সারাদেশে সা¤প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে বরারবই রাজপথে ছিলো সংগঠনটি। কোনো সময় তাদের সাথে আপোষ করেনি তারা। দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে নীতি ও আদর্শের সাথে কাজ করেছে ছাত্রমৈত্রী।
ছাত্র সমাবেশে ছাত্রমৈত্রীর মহানগর সভাপতি জুয়েল খানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- মহানগর সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু, জেলার সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতা, নগর সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য মনিরুউদ্দীন পান্না, মনিরুজ্জামান মনির, নাজমুল করিম অপু, শামীম ইমতিয়াজ সুমন। সমাবেশ পরিচালনা করেন মহানগর ছাত্রমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক সম্রাট রায়হান। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close