গোদাগাড়িশিরোনাম-২

গোদাগাড়ীর শীর্ষ মাদক কারবারি মুক্তাসিন হেরোইন ও ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার

মুক্তার হোসেন,গোদাগাড়ী : রাজশাহীর গোদাগাড়ীর অন্যতম শীর্ষ মাদক কারবারি মো. মুক্তাসিনকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ৮৫০ গ্রাম হেরোইন ও ৪৯ পিস ইয়াবা বড়ি। সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে গোদাগাড়ী পৌরসভার মহিষালবাড়ি মহল্লার নিজ বাড়ি থেকে মুক্তাসিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। মুক্তাসিনের বাবার নাম মৃত এমাজ উদ্দিন। র‌্যাব-৫ এর রাজশাহীর মোল্লাপাড়া ক্যাম্পের একটি দল এ অভিযান চালায়। র‌্যাব-৫ এর কোম্পানী অধিনায়ক এটিএম মাইনুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মুক্তাসিনের কাছ থেকে একটি ভারতীয় সীম কার্ডও জব্দ করা হয়েছে। এই সীম কার্ড দিয়েই তিনি ভারতের হেরোইন সরবরাহকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতেন। মুক্তাসিনকে গ্রেপ্তার করায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন গোদাগাড়ী সদরের বাসিন্দারা। স্থানীয় লোকজন জানান, মুক্তাসিন যুবলীগ করেন। তিনি গোদাগাড়ী পৌরসভার দুই নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি। এলাকার সব মাদক ব্যবসায়ীদের সেল্টার দিতেন তিনি। মহিষালবাড়ি পশুহাটের পাশে মুক্তাসিনের একটি ব্যক্তিগত কার্যালয়ও রয়েছে। স্থানীয়রা আরও জানান, মুক্তাসিনের কার্যালয়ে মদ, জুয়ার আসরও চলতো রাতভর।গোদাগাড়ীর শীর্ষ মাদক কারবারি মুক্তাসিন হেরোইন ও ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার চলতো অসামাজিক কার্যকলাপও। আর এই কার্যালয়ে যাতায়াত ছিলো থানার পুলিশের। মহিষালবাড়ি এলাকায় রাতে দায়িত্বে থাকা পুলিশের পিকআপ ভ্যানটি বেশিরভাগ রাতেই মুক্তাসিনের কার্যালয়ের সামনে দেখা যায়। ভেতরে আড্ডা দেন পুলিশের সদস্যরা। মুক্তাসিন পুলিশকে ম্যানেজ করে নিজে মাদক ব্যবসা চালানোর পাশাপাশি তদবির বাণিজ্যও চালিয়ে আসছিলেন। কোনো মাদক ব্যবসায়ীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করলেই তিনি তদবির করে ছাড়িয়ে নিতেন অথবা টাকা দিয়ে মামলায় মাদকের পরিমাণ কমিয়ে দিতেন। তাকে গ্রেপ্তার করায় স্থানীয়রা স্বস্তি প্রকাশ করেছেন।র‌্যাব-৫ এর কোম্পানী অধিনায়ক এটিএম মাইনুল ইসলাম জানান, মুক্তাসিনের বিরুদ্ধে গোদাগাড়ী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা করা হয়েছে। তাকে থানায় হস্তান্তরও করা হয়েছে। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close