বগুড়াশিরোনাম

বগুড়ায় ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ছাত্রদল পুলিশ সংঘর্ষ, আহত ৫

ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি: বগুড়ায় ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে শহীদ মিনারে জুতা পায়ে পুস্প অর্পনকে কেন্দ্র করে ছাত্রদল-পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ৫ জন আহত ও ১৫ জনকে আটক করা হয়েছে।
বুধবার দুপুরে বগুড়ার শহীদ খোকন পার্কের কেন্দ্রীয় মিনারে এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনা সুত্রে জানা যায়, ছাত্রদলের ৪১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে শহরে নবাববাড়ি সড়কে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ ছিল। বিভিন্ন এলাকা থেকে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী শহীদ খোকন পার্কে সমবেত হন। সদর আসনের এমপি ও জেলা বিএনপির আহ্বায়ক গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ এলে তারা মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে যাবেন।
এ সময় বেশকিছু নেতাকর্মী জুতা-স্যান্ডেল পায়ে শহীদ মিনারে ওঠে শ্লোগান দিতে থাকেন। ওই এলাকায় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) সনাতন চক্রবর্তী ভিতরে ঢুকে জুতা পায়ে থাকা নেতাকর্মীদের শহীদ মিনার থেকে নামতে অনুরোধ করেন।
এতে নেতাকর্মীরা ক্ষিপ্ত হয়ে প্ল্যাকার্ড বহনের লাঠি দিয়ে পুলিশের উপর হামলা করেন। লাঠির আঘাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী, এএসআই আশরাফুল আলম ও কনস্টেবল পারভেজসহ ৫ জন আহত হন। একজনকে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
হামলার পরপরই ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা প্রাচীর ডিঙ্গিয়ে পালিয়ে যান। পুলিশ বিভিন্ন স্থান থেকে ছাত্রদলের ১১ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানয়েছে পুলিশ।
অন্যদিকে জুতা-স্যান্ডেল পায়ে শহীদ মিনারে উঠে দলীয় শ্লোগান এবং পুলিশকে মারধর করার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। তারা এ ঘটনায় জড়িত ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ জানিয়েছেন। বরেন্দ্র বার্তা/সরা/অপস

Close