বাঘাশিরোনাম-২

বাঘায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের আত্মহত্যা

ষ্টাফ রির্পোট : বাঘায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করেছেন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষক। আত্মহত্যাকারি শিক্ষকের নাম সাইফুল ইসলাম (৫৮)। আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৬টায় তার নিজ বাড়ির শয়ন ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। তিনি তিনি উপজেলা খাগড়বাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক ও বাউসা মিয়াপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল মজিদের ছেলে।
পরিবারের দাবি, সন্তানদি না হওয়ায় মানষিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন খাগড়বাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক সাইফুল ইসলাম। সে উপজেলার বাউসা মিয়াপাড়া গ্রামের মৃত আবদুল মজিদের ছেলে। স্ত্রী আনোয়ারা জানান, তাকে পাবনার মানষিক হাসপাতালসহ ভারতের বিভিন্নস্থানে চিকিৎসাও করানো হয়েছে। আগামী বুধবার পাবনার মানষিক হাসপাতালে নেওয়ার কথা ছিল।
বাউসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান জানান, নিজ বাড়ির রান্না ঘরে আত্নহত্যা করেন শিক্ষক সাইফুল ইসলাম। অনুমতি সাপেক্ষে এলাকার গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
বাঘা থানার অফিসার ইনচাজর্ ( তদন্ত) আতিকুর রেজা বলেন, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়নি। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close