নওগাঁশিরোনাম-২

রাণীনগর ও আত্রাইয়ে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি : কাজে ফিরতে পারছে না সাধারণ মানুষ

কাজী আনিছুর রহমান,রাণীনগর (নওগাঁ) : শীতের প্রকোপ আর শৈত্য প্রবাহের আমেজ কমতে না কমতেই হঠাৎ করেই নওগাঁর রাণীনগর ও আত্রাইয়ে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টির দেখা মিলেছে। জেঁকে বসছে তীব্র শীত। রবিবার (১৯ জানুয়ারী) সকাল থেকেই সূর্যের মুখ দেখা যায়নি। আকাশে মেঘ থাকায় বৃষ্টির ছোয়ায় তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে। বৃষ্টির প্রভাবে উত্তর কোণ থেকে বয়ে আসা ঠান্ডা বাতাস শীতের মাত্রা দ্বিগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে। ফলে জেঁকে বসেছে শীত রাণীনগর ও আত্রাইয়ের সবখানে।
উত্তরাঞ্চলে চলছে মৃদ্যু শৈত প্রবাহ। যার কারণে কনকনে শীতে কাপছে সমগ্র উত্তরাঞ্চল। তারই ধারাবাহিকতায় নওগাঁর রাণীনগর ও আত্রাইয়ে কাপছে শীতে। শীতের কুয়াশা না থাকলেও কনকনে হঠাৎ বৃষ্টির ফলে শীতের তীব্রতায় একেবারেই নাজেহাল অবস্থায় খেটে খাওয়া ও দিনমজুর গোত্রের লোকজন। প্রচন্ড শীত ও হিমেল হাওয়ায় বাহিরে বের হয়ে কোন কাজ করার জো নেই। গরম কাপড়ও তেমন কাজে আসছে না।
রাণীনগর ও আত্রাই উপজেলা জুড়ে কুয়াশা না থাকলেও বেড়েছে শীতের তীব্রতা কনকনে শীতের কারণে কাজে ফিরতে পারছে না সাধারণ মানুষরা। এতে করে জনজীবন একেবারে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।
রাণীনগর উপজেলার আবাদপুকুর সার ব্যবসায়ী সাজ্জাদ হোসেন ও আত্রাই উপজেলার সাধারন ব্যবসায়ী বিপ্লব কুমার পাল বলেন কুয়াশা নেই কিন্তু বৃষ্টির ফলে কনকনে শীতের তীব্রতায় তো জীবন আর থাকে না। বাহিরে বের হওয়া যাচ্ছে না। হিমেল হাওয়ার কারণে দোকানপাট খুলে থেকে বসে থাকার মতো কোন উপায় নেই। জানি না এই অবস্থা আর ক’দিন থাকবে। এই অবস্থা বেশি দিন থাকলে চরম বিপদে পড়বে খেটে খাওয়া, দিনমজুর শ্রেণীর মানুষ আর বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে বয়স্ক ও কোমলমতি শিশুরা।বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close