মোহনপুরশিরোনামসাহিত্য ও সংস্কৃতি

এবারও একুশে বই মেলায় একঝাঁক রাবিয়ানের কৃতিত্ব

কামরুল হাসান, রাবি প্রতিনিধি: বাঙালির ইতিহাস ও সাংস্কৃতির ধারক-বাহক বাংলা একাডেমি কর্তৃক প্রতি বছর ভাষার মাস ফেব্রুয়ারীতে শুরু হয় বাঙালির প্রাণের উৎসব অমর একুশে গ্রন্থমেলা। কবি, লেখক ও প্রকাশকের এই মিলন মেলা হয় রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। বরাবরের ন্যায় এবারও বই মেলায় কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীরা।

বিভিন্ন প্রকাশনী থেকে প্রকাশিত বই গুলোর মধ্যে রয়েছে, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের মাস্টার্সে শিক্ষার্থী আরাফাত শাহীনের মহান মুক্তিযুদ্ধের গৌরব উজ্জল ঘটনা নিয়ে রচিত “ লাল সবুজের গল্প”, শুদ্ধতার প্রতিক শাপলা ফুলে বাঁধা কিশোরীর খেয়ালিপনার সাথে পল্লী গাঁয়ের জ্যোৎস্না স্নাত রাতের অপার সৌন্দর্যের আলিঙ্গন ঘটিয়ে দিপঙ্কর সাহার রচিত “সুতোয় বাধাঁ শাপলা”, বাবা হারানো এক মেয়ের করুণ আর্তনাদ আর বাবার প্রতি ব্যাকুলতার এক বাস্তব ঘটনা অবলম্বনে সোহানা হোসেন রচিত “ প্রযত্নে বাবা”, জীবনের বিভিন্ন সমস্যা, সফলতা, ব্যর্থতা, সুখ-দুঃখ, ক্যারিয়ার, উদ্যোক্তা এবং মানবিক দিক নিয়ে লেখা জোনাইদ আল হাবীবের “দ্যা আর্ট অব সাকসেস এবং সাকসেস ইন স্টুডেন্ট লাইফ” মধ্যবিত্তের পাওয়া না-পাওয়ার হিসাব নিকাশ নিয়ে রচিত খুর্শিদ রাজীবের “জীবন্ত ফসিল” এবং মুহাম্মদ মহিউদ্দিনের সম্পাদনায় যৌথ গল্পগ্রন্থ “ হলুদ প্রেম ও নীল বেদনার গল্প”
নবীণ লেখক হিসেবে প্রকাশিত বই গুলো নিয়ে তাদের অনুভূতি জানতে চাইলে তারা বলেন, তরুণ প্রজন্মের চাহিদা ও চাওয়া-পাওয়া নিয়ে রচিত বইগুলো পাঠক মনে ব্যাপক সাড়া ফেলবে বলে আশা রাখি। এর মধ্য দিয়ে বাংলা সাহিত্যের প্রতি তরুণের আগ্রহ অনেক বেশি বাড়বে বলে মনে করেন তারা।
বরেন্দ্র বার্তা/ নাসি

Close