অর্থ ও বাণিজ্যমহানগরশিরোনাম

রাজশাহীতে সোমবার থেকে ৭দিন ব্যাপি এসএমই পণ্যমেলা শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা এসএমই ফাউন্ডেশনের উদ্যোগ ও রাজশাহী জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় রাজশাহীর কালেক্টর মাঠে আঞ্চলিক এসএমই পণ্যমেলা শুরু হবে আগামীকাল সোমবার থেকে। রোববার বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসকের মিনি কনফারেন্স রুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হক জানান। এই মেলা সাত হওয়ার কথা থাকলেও জেলা প্রশাসনের বিশেষ কাজের জন্য একদিন পরে ২ মার্চ শেষ হবে বলে জানান জেলা প্রশাসক। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প-প্রতিষ্ঠান (এসএমই) গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে আসছে। বর্তমানে দেশে কুটির শিল্পসহ প্রায় ৭৮ লাখ অতিক্ষুদ্র (মাইক্রো), ক্ষুদ্র ও মাঝারি (এসএমই) শিল্প প্রতিষ্ঠান রয়েছে। ‘এসএমই নীতিমালা-২০১৯ অনুসারে সরকারের উন্নয়ন রুপকল্পসমূহ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ২০২৪ সালের মধ্যে জাতীয় আয়ে এসএমই খাতের অবদান। বিদ্যমান ২৫ শতাংশ থেকে ৩২ শতাংশে উন্নীতকরণের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।
এই ক্ষেত্রে এসএমই ফাউন্ডেশন মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উন্নয়নে বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এসব কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ফাউন্ডেশন ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্যের প্রচার, প্রসার, বিক্রি এবং ক্রেতা-বিক্রেতার সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে, স্থানীয় প্রশাসন, ব্যবসায়িক প্রতিনিধিসহ স্টেকহোল্ডারদের সম্পৃক্ত করে আঞ্চলিক এসএমই পণ্যমেলা আয়োজন করে থাকে। জাতীয় ও আঞ্চলিক পর্যায়ে এসব মেলা আয়োজনের মাধ্যমে এসএমই পণ্যের ব্যাপক পরিচিতির পাশাপাশি উৎপাদক, ক্রেতা ও বিক্রেতার মধ্যে পারস্পারিক সংযোগ স্থাপিত হয়, এসএমই পণ্যের বাজার সম্প্রসারিত হয় এবং শিল্পায়নের বিকাশের সঙ্গে সঙ্গে ব্যাপক কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়ে থাকে।
রাজশাহী জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মেলা আয়োজনের সব ধরনের প্রস্তুতি এরই মধ্যে শেষ করা হয়েছে। রাজশাহীসহ সারাদেশের ৭০টি প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ গ্রহণ করতে যাচ্ছে। অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানসমূহের মধ্যে রাজশাহী জেলার ৫০টি প্রতিষ্ঠান এবং অন্যান্য জেলার ২০টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। আজ সোমবার সকাল ১০টায় মেলা উদ্বোধন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে। স্থানীয় ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা, এসএমইর সঙ্গে সম্পৃক্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, বিসিক, ব্যবসায়ী সংগঠন, চেম্বার অব কমার্স, নাসিব, সরকারি-বেসরকারি ব্যাংকের প্রতিনিধিসহ, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, স্কুল কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং নানা শ্রেণি-পেশার মানুষের সমন্বয়ে এটি মহানগরীর সিএন্ডবি মোড় থেকে শুরু হয়ে মেলা প্রাঙ্গণ কালেক্টর মাঠে গিয়ে শেষ হবে। বেলা ১১টায় মেলার উদ্বোধন হবে। জেলা প্রশাসক আরও জানান, মেলার উদ্বোধন করবেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে। মেলায় প্রবেশের জন্য কোনো প্রবেশ মূল্য নেই। মেলায় আগত দর্শনার্থীদের জন্য থাকছে সেমিনার, কুইজ প্রতিযোগিতা, বিভিন্ন লোকজ খেলা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
এছাড়া মেলার সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তৎপর রয়েছে। ক্রেতা-বিক্রেতা ও আগত দর্শনার্থীদের জন্য পার্কিং, অস্থায়ী স্যানিটেশন ও নিরাপদ খাবার পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। আগামী ২ মার্চ সন্ধ্যা ৭টায় মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের পুরস্কার দেওয়া হবে এবং মেলায় অংশগ্রহণকারী সব উদ্যোক্তাদের সনদপত্র দেওয়া হবে। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড.হুমায়ুন কবীর খোন্দকার। সংবাদ সম্মেলনে রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ শরীফুল হকসহ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার অভিজিদ সরকার, সহকারী কমিশনার সুমন চৌধুরী, এসএমই ফাউন্ডেশনের সহকারী ব্যবস্থাপক কিমিয়া ফেরদৌসী ও বিসিখ সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্থা নজুল ইসলাম এবং রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সচিব জাকির হোসেন। বরেন্দ্র বার্তা/ফকবা/অপস

Close