চারঘাটমহানগরশিরোনাম

অবশেষে পদ্মা থেকে উদ্ধার করা হলো নববধূ সুইটির মরদেহ

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ সোমবার সকাল ৭ টায় শ্যামপুর ঘাট থেকে নববধু সুইটি আক্তার পূর্ণিমার মরদেহ উদ্ধার করেছে জেলেরা।
যখন পদ্মা থেকে উদ্ধার করা হলো নববধূ সুইটি আক্তার পূর্ণিমাকে সবই ঠিকঠাক। হাতে মেহেদি, গায়ে গহনা, পরনে লাল বেনারসি। শুধ দেহটায় নিথর। রাজশাহীর পদ্মানদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় এনিয়ে উদ্ধার হলো নিখোঁজ ৯ জনের লাশ। স্থানীয় প্রশাসন মনে করছে, সাতার জানা সুইটি ভারী কাপড়-চোপড় পরিধান করে থাকায় তলিয়ে যায় পানিতে।
শুক্রবার সন্ধ্যায় বউভাতের আনুষ্ঠানিকতা শেষে পদ্মার চরের খানপুর এলাকা থেকে, ২টি নৌকায় করে পবা উপজেলার ডাঙ্গিরপাড়ার উদ্দেশে রওনা দেয় যাত্রীরা। মাঝনদীতে বৈরি আবহাওয়ার কবলে পড়ে উল্টে যায় নৌকা দুটি। উদ্ধার অভিযানে ৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
রাজশাহী ফায়ার সার্ভিসের সদর দপ্তরের উপ-পরিচালক আব্দুর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সর্বশেষ নিখোঁজ লাশটিও উদ্ধার করা হলো। এনিয়ে মোট নিখোঁজ ৯ জনের লাশ উদ্ধার করা হলো। এখনই উদ্ধার অভিযান স্থগিত করা হলো।
গত বৃহস্পতিবার চরখিদিরপুর এলাকার মৃত ইনসার আলীর ছেলে আসাদুজ্জামান রুমনের সাথে বিয়ে হয় সুইটি খাতুনের। বিয়ের পরে ওইদিনের নববধূর সাজে স্বামীর বাড়িতে গিয়েছিলেন সুইটি খাতুন।
পরের দিন শুক্রবার স্বামীর বাড়িতে বৌভাত শেষে বাবার বাড়িতে ফিরছিলেন সুইটি। কিন্তু পদ্মা নদীতে যাওয়ার সময় কিছু দূর যেতেই দুটি নৌকা ডুবে যায় অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই এর কারণে। এতে সবমিলিয়ে নিখোঁজ হন ৯ জন। অন্যদের উদ্ধার করা হয়। পরে আজ সোমবার পর্যন্ত নিখোঁজ ৯ জনের পর্যায়ক্রমে লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close